রবিবার , ২০ মে ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত
কারারক্ষীকে ফাঁকি দিয়ে হাসপাতাল থেকে চোর পালালো

কারারক্ষীকে ফাঁকি দিয়ে হাসপাতাল থেকে চোর পালালো

মে ১০, ২০১৮

মেহেদী হাসান শহরের সাতপাই এলাকার বাসিন্দা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন বাসাবাড়িতে চুরি, মাদক সেবন ও মাদক ব্যবসায় জড়িত। তাঁর নামে জেলার বিভিন্ন থানায় দেড় ডজনের বেশি মামলা রয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে নেত্রকোনা মডেল থানার পুলিশ শহরের জয়নগর এলাকায় চুরির প্রস্তুতির সময় তাঁকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় তাঁর দেহ তল্লাশি করে ২৩০ গ্রাম হেরোইন জব্দ করা হয়।

মেহেদী হাসানকে গ্রেপ্তারের পর নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি বোরহান উদ্দিন খান সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, মেহেদীকে বৃহস্পতিবার রাতে ধরতে গেলে তিনি সব পুলিশের শরীরে ব্যাগভর্তি মলমূত্র ছুড়ে দেন। এতে অভিযান দলে থাকা পুলিশ সদস্যদের শরীর ও কাপড়চোপড় নষ্ট হয়। একপর্যায়ে কুখ্যাত ওই চোরকে ২৩০ গ্রাম হেরোইনসহ গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিকে মেহেদীকে আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানোর পর গতকাল সকালে তিনি পেটব্যথা বলে অসুস্থতার ভান করেন। পরে কারা কর্তৃপক্ষ দুই কারারক্ষী জয়নাল ও সাইফুলকে দিয়ে তাঁকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠায়। হাসপাতালে নেওয়ার পর জরুরি বিভাগে চিকিৎসা শেষে বের হওয়ার সময় কারারক্ষীদের ফাঁকি দিয়ে তিনি কৌশলে পালিয়ে যান। কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, মেহেদী পালিয়ে যাওয়ার সময় তাঁর হাতে হ্যান্ডকাপ পরা ছিল। ওই দুই কারারক্ষীর দায়িত্বের অবহেলায় চোরটি অভিনব পন্থায় দৌড় মেরে পালিয়ে যায়। নেত্রকোনা কারাগারের জেল সুপার আবদুল কুদ্দুছ বলেন, দায়িত্বে অবহেলার জন্য দুই কারারক্ষীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী বলেন, মেহেদীকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*