বৃহস্পতিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ || ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ || ১৫ই সফর, ১৪৪২ হিজরি

তিন দুলাভাইয়ের ধর্ষণ: নবজাতকসহ থানায় কিশোরী

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী তিনজন দুলাভাইয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন। এমনকি ধর্ষণের জেরে গর্ভবতী হয়ে সন্তানেরও জন্ম দিয়েছে সে। পরে সদ্যজাত সেই শিশুকে কোলে করে পুলিশের দ্বারস্থ হয় ওই কিশোরী। পুরো ঘটনা শুনে হতবাক পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুরের কালিয়াগঞ্জ থানা এলাকায়। গত রবিবার মাত্র চারদিনের শিশুকে কোলে করে থানায় হাজির হয় ওই কিশোরী ও তার মা। অপ্রত্যাশিত দৃশ্য দেখে কর্মরত পুলিশ রীতি মতো স্তম্ভিত হয়ে যায়। এরপর সোমবার নির্যাতিত ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়।

স্থানীয় রাধিকাপুরের ওই কিশোরীর অভিযোগ, গত বছর অক্টোবরের দুর্গাপূজার দশমির সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে। চাঁদপুকুর মাঠের মেলায় নিয়ে যাওয়ার নামে নদী সংলগ্ন বাঁধে তাকে ধর্ষণ করে বুড়িডাঙার লিটন বর্মন ও চপরইয়ের বাসিন্দা দীপক রায়। পরে ধর্ষণ করে পান্ডারার সুমিত বর্মনও।

সে আরো জানায়, তিনজনই সম্পর্কে তার দুলাভাই। ধর্ষণের পর দুলাভাইয়েরা তাকে হুমকি দেয়- ঘটনার কথা কাউকে জানালে মেরে ফেলা হবে।

কিশোরীর মা বলেন, ২ জুলাই দুপুরে বাড়িতে আমার মেয়ে সন্তান জন্ম দেয়। এরপর মেয়ের কাছে আসল ঘটনা জানতে পারি। যারা মেলা দেখানোর নামে আমার মেয়ের এই সর্বনাশ করল, তারা আমার জামাই। নিজেদের খাওয়া জোটে না। তার ওপরে এই দুধের শিশুকে কীভাবে কী করব, জানি না। ওদের শাস্তি চাই।

কিশোরীর জবানবন্দির জন্য সোমবার তাকে রায়গঞ্জ জেলা আদালতে পাঠায় পুলিশ। কালিয়াগঞ্জের আইসি আশিস দলুই বলেন, কিশোরীর দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

লেখক পরিচিতি

Responses