শনিবার, ১৫ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ || ১লা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ৪ঠা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি

মেয়রপ্রার্থী নলছিটির মাসুদের প্রতীক বরাদ্দের নির্দেশ আপিলেও বহাল

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
‘আমার ভাষা’ সফটওয়্যারে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের ৫টি রায়ের অনুবাদ

ডেস্ক রিপোর্ট

ঝালকাঠির নলছিটি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী কেএম মাসুদকে প্রতীক বরাদ্দ দিতে নির্বাচন কমিশনকে হাইকোর্টের দেয়া নির্দেশ বহাল রেখে আদেশ দিয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ।

এর ফলে তাকে এখন প্রতীক বরাদ্দ দিতে আইনি আর কোনো বাধা নেই। আদেশের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন রিটকারীর পক্ষের আইনজীবী আক্তার রসুল মুরাদ।

নলছিটি পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্রপ্রার্থীকে প্রতীক বরাদ্দের দেয়া আদেশ স্থগিত চেয়ে কেএম মাসুদের করা আপিল আবেদন শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন। তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। অন্যদিকে কেএম মাসুদের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। তার সাথে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. আক্তার রসুল মুরাদ, নুসরাত ইয়াসমিন, মো. মোসাদ্দেক বিল্লাহ, আব্দুল্লাহিল মারুফ ফাহিম ও নুরে আলম সিদ্দিকী সোহাগ।

 মেয়রপ্রার্থী নলছিটির মাসুদের প্রতীক বরাদ্দের নির্দেশ আপিলেও বহাল
মেয়রপ্রার্থী নলছিটির মাসুদের প্রতীক বরাদ্দের নির্দেশ আপিলেও বহাল

এর আগে গত ১৩ জানুয়ারি ঝালকাঠির নলছিটি পৌরসভা নির্বাচনে ২০২১ এর মেয়রপ্রার্থী কে এম মাসুদকে প্রতীক বরাদ্দ দিতে নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে কে এম মাসুদের প্রার্থিতা বাতিলে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসকের আদেশ কেনো অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিলেন আদালত।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক, ঝালকাঠির রিটার্নিং কর্মকর্তা, নলছিটি পৌরসভাসহ সংশ্লিষ্টদের চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছিল।

নলছিটি পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্রপ্রার্থী কে এম মাসুদের দায়ের করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মাহমুদ হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ অদেশ দেন।

আপিল বিভাগের আদেশের পর আইনজীবী আক্তার রসুল মুরাদ বলেন, হাইকোর্টের দেয়া আদেশের পর ওইদিনই রাষ্ট্রপক্ষ সেই আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল আবেদন করে। ওই আবেদন শুনানি নিয়ে গত ১৯ জানুয়ারি সুপ্রিমকোর্টের চেম্বারজজ আদালত হাইকোর্টের দেয়া আদেশ আট সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছিল। ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে আবেদন করেন কেএম মাসুদের আইনজীবী। আবেদনের শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন আপিল আদালত।

এর আগে গত ৩ জানুয়ারি সাবেক মেয়র কে এম মাসুদের মনোনয়নপত্র বাতিল করে নির্বাচন কমিশন। এ আদেশের বিরুদ্ধে জেলা নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন মাসুদ। পরে গত ৭ জানুয়ারি এটি বাতিলের আদেশ বহাল রাখেন জেলা আপিলেড কর্মকর্তা (ডিসি)। সেই আদেশ চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়।

সাবেক মেয়র কে এম মাসুদ স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। আগামী ৩০ জানুয়ারি নলছিটি পৌরসভা নির্বাচনের ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

Responses

লেখক পরিচিতি