মঙ্গলবার, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ || ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ || ৭ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

মেয়র তাপসের নামে ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, দুজনকে গ্রেফতার

মেয়র তাপসের নামে ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, দুজনকে গ্রেফতার
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ডেস্ক রিপোর্ট

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা করার অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করেছে ডিএমপির গোয়েন্দা সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের টিম।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সকালে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে অতিরিক্ত কমিশনার একেএম হাফিজ আক্তার এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান। তিনি জানান, গত ১০ জানুয়ারি থেকে ধারাবাহিক অভিযানে রংপুর ও গাজীপুর জেলা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো জাকারিয়া ও একরামুল হক (৫) রাজু। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি স্মার্ট ফোন ও টাকা লেনদেন করার কাজে ব্যবহৃত একটি বিকাশ একাউন্ট নাম্বারের সিম উদ্ধার করা হয়। উচ্চশিক্ষিত না হলেও তারা প্রতারণা ও প্রযুক্তিতে বেশ দক্ষ।

মেয়র তাপস তার নামে ভুয়া আইডি খুলে প্রতারণার তথ্য পেয়ে গত ১ জানুয়ারি শাহবাগ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি করেন। এই মামলার তদন্ত শুরু করে গোয়েন্দা সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় আসামিদের শনাক্তসহ গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারের সময় জাকারিয়ার মোবাইলে “Shekh Fazle Noor Taposh” নামে একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি লগইন অবস্থায় পাওয়া যায়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানায়, গ্রেফতারকৃত জাকারিয়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়রের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে নিজেকে মেয়র পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন লোকজনকে চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে টাকা দাবি করে। টাকা সংগ্রহ করার জন্য গ্রেফতারকৃত একরামুল হকের নামে রেজিস্ট্রেশনকৃত বিকাশ নাম্বার ব্যবহার করে।

মেয়র তাপসের নামে ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, দুজনকে গ্রেফতার
মেয়র তাপসের নামে ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, দুজনকে গ্রেফতার

ফেসবুক হ্যাকার গ্রেফতার

অপর এক অভিযানে গত ১০ জানুয়ারি রংপুর জেলার রাণীশৈংকল থানা এলাকা হতে ফেসবুক হ্যাক করে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে সাইফুল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের সময় তার কাছ থেকে ফেসবুক হ্যাকিং এর কাজে ব্যবহৃত একটি কম্পিউটার, বিকাশে টাকা সংগ্রহ এবং হ্যাকিং এর কাজে ব্যবহৃত ২ টি স্মার্ট ফোন, বিভিন্ন অপারেটরের ৭টি সিম উদ্ধার করা হয় ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাইফুল জানায়, সে প্রথমে বিভিন্ন লোভনয় অফার সম্বলিত ফিশিং লিংক তৈরি করে টার্গেট করা ফেসবুক আইডির ম্যাসেঞ্জারে (বিশেষ করে মহিলাদের) পাঠায়। ওই লিংকে ক্লিক করে সেখানে দেওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী তথ্য প্রদান করা মাত্রই ভিকটিমের ফেসবুক আইডিটি সাইফুলের নিয়ন্ত্রণে চলে যায়।

এরপর সে ভিকটিমের ফেসবুক আইডির বন্ধুদের ম্যাসেঞ্জারে নক করে তাদের কাছে বিভিন্ন অজুহাতে টাকা ধার চায় এবং টাকা পাঠানোর জন্য নিজের বিকাশ নাম্বার দেয়। এভাবে সে অসংখ্য ফেসবুক আইডি হ্যাক করে ভিকটিমদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয় । গ্রেফতারকৃতের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে।

লেখক পরিচিতি

Responses