মঙ্গলবার, ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ || ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ || ১৪ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

রিয়ার বিরুদ্ধে সুশান্তের বাবার এফআইআর

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

বিনোদন ডেস্ক: বলিউডের প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহননেন ঘটনায় প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে ফার্স্ট ইনফরমেশন রিপোর্ট (এফআইআর) দায়ের হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) পাটনা থানায় এই অভিযোগ দায়ের করেছেন সুশান্তের বাবা কে কে সিং।

সেন্ট্রাল রেঞ্জের ইন্সপেক্টর জেনারেল সঞ্জয় কুমার সিং হিন্দুস্তান টাইমসকে বলেন, ‘রাজিব নগর থানায় রিয়া চক্রবর্তী ও তার পরিবারের সদস্য ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী, সন্ধ্যা চক্রবর্তী, শ্রুতি মোদি, সৌমিক চক্রবর্তী এবং অন্যদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৩৪১, ৩৪২, ৩৮০, ৪০৬, ৪২০, ৩০৬ এবং ১২০ (বি) ধারায় অভিযোগ দায়ের করেছেন কে কে সিং। রিয়া ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে গুরুতর কিছু অভিযোগ দায়ের করেছেন সুশান্তের বাবা। তার অভিযোগ, সুশান্তকে সম্পূর্ণ নিজের নিয়ন্ত্রণে এবং পরিবার থেকে দূরে রাখতেন রিয়া। এমনকি এই অভিনেত্রী তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টও নিয়ন্ত্রণ করতেন। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে কোটি কোটি রুপি তোলা হয়েছে বলেও জানানো হয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘চার সদস্যের পুলিশের টিম মঙ্গলবার মুম্বাই পৌঁছেছে এবং সবরকমভাবে বিষয়টি তদন্ত করবে।’ এছাড়া মুম্বাই পুলিশ মহেশ ভাট, সঞ্জয় লীলা বানসালি, আদিত্য চোপড়াসহ ৩৮ জন ব্যক্তির যে জবানবন্দি দিয়েছে সেটিও খতিয়ে দেখবে পাটনা পুলিশ।

রাজিব নগর থানার একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘ছেলের মৃত্যুর পর থেকেই বিপর্যস্ত ছিলেন কে কে সিং। তিনি পাটনার এক সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে দেখা করে নিজের দুঃখের কথা জানান। তিনি জানান, এই বিষয়ে মুম্বাই পুলিশের প্রতি তার আস্থা নেই।’

এফআইআর-এ সুশন্তের বাবা অভিযোগ করেছেন, রিয়া বুঝতে পারছিলেন সুশান্তের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অর্থ দিন দিন কমছে, এরপর ৮ জুন নগদ অর্থ, অলংকার, ল্যাপটপ, ক্রেডিট কার্ড, পিন নম্বর, পাসওয়ার্ড, গুরুত্বপূর্ণ কিছু কাগজ এবং চিকিৎসকের রশিদ নিয়ে চলে যায়।

অভিযোগে আরো বলা হয়েছে, সুশান্ত তার বোনকে ফোন করে জানিয়েছিলেন, রিয়া চিকিৎসকের রশিদ মিডিয়াকে দেখিয়ে সুশান্তকে পাগল প্রমাণ করার ‍হুমকি দিয়েছেন। এরপর কেউ তাকে কাজ দেবে না। ৮ জুন সুশান্তের সেক্রেটারি আত্মহত্যা করেন। রিয়াই তাকে সুশান্তের সেক্রেটারি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিলেন। কিন্তু পরে তার ফোনে সুশান্তের নম্বর ব্লক করে দেন রিয়া। তার সেক্রেটারির আত্মহত্যার ঘটনায় তাকে রিয়া ফাঁসাতে পারেন বলে সুশান্ত ভয় পাচ্ছিলেন। কারণ এ বিষয়ে তাকে হুমকি দিয়েছিলেন এই অভিনেত্রী।

সুশান্তের বাবা জানিয়েছেন, অসুস্থতার কারণে মুম্বাইয়ে গিয়ে মামলা লড়তে যেতে পারবেন না তিনি। এ কারণে পাটনায় এই অভিযোগ দায়ের করেছেন।

লেখক পরিচিতি

Responses