রবিবার , ২০ মে ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত
শারীরিক সম্পর্ক না থাকায় বিয়ে বাতিল করল আদালত

শারীরিক সম্পর্ক না থাকায় বিয়ে বাতিল করল আদালত

মে ৩, ২০১৮

বিডি ল নিউজঃ শারীরিক সম্পর্ক বৈধতা পায় যখন পুরুষ এবং নারী দুইজনে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। কিন্তু, বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে যদি তাদের মাঝে অন্তত একবারও শারীরিক সম্পর্ক না ঘটে থাকে, তাহলে বিবাহ কীভাবে পূর্ণতা পায়? তাই তো ভেঙে গেলো বিয়ের ৯ বছর পর পবিত্র বন্ধন।
মহারাষ্ট্রের কোলহাপুরের বাসিন্দা এক দম্পতির বিয়ে সংক্রান্ত মামলায় এই রায়ই দিয়েছেন মুম্বাই হাইকোর্টের বিচারপতি মৃদুলা ভাটকর। কার্যত বিয়ের দিন থেকেই সেই দম্পতির আইনি লড়াই শুরু হয়েছিল। বিয়ে বাতিলের আবেদন জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন স্ত্রী।
তার অভিযোগ ছিল, ভুয়া কাগজে সই করিয়ে তাকে বিয়ে করেছে তার স্বামী। ফলে তিনি প্রতারিত হয়েছেন। প্রতারণার অভিযোগকে মান্যতা না দিলেও সেই দম্পতির মধ্যে যে একদিনের জন্যও শারীরিক সম্পর্ক তৈরি হয়নি, তা মেনে নেন বিচারপতি।
বিচারপতি বলেন, “বিবাহিত জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ হচ্ছে দু’পক্ষের মধ্যে স্বাভাবিক শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলা। আর এই ধরনের সম্পর্কে তা না থাকলে, বিয়ের উদ্দেশ্যই নষ্ট হয়ে যায়।
একবারের জন্য শারীরিক সম্পর্ক তৈরি হলেও সেই বিয়ে পূর্ণতা পায়। ”
তবে সেই নারীর স্বামীর অবশ্য দাবি ছিল যে দু’জনের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক ছিল। এমনকী, তার স্ত্রী অন্তসত্ত্বাও হয়েছিলেন। যদিও, এই দাবির স্বপক্ষে আদালতে চিকিৎসকের রিপোর্ট বা অন্য কোনও প্রমাণ পেশ করতে পারেননি তিনি। আদালতও মেনে নেয় যে সেই দম্পতি একটি দিনের জন্যও একসঙ্গে থাকেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*