শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ || ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ || ১৩ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

হেবা দলিল বাতিল করার নিয়ম

জমির দলিল হারিয়ে গেলে করণীয় কি?
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

হেবা দলিল বাতিল

হেবা/দান কাকে বলে?

হেবা দলিল বাতিল করার নিয়ম জানার আগে জেনে নেই হেবা বা দান কি? হেবা বা দান হলো মূলত এমন এক ধরনের হস্তান্তর পদ্ধতি যার মাধ্যমে মালিকানার পরিবর্তন ঘটে এবং অন্য ব্যক্তির বরাবরে মালিকানার স্বত্ব সৃষ্টি করে তাকে মূলত হেবা বা দান বলা হয়।

হেবা দলিল বাতিল করার নিয়ম
হেবা দলিল বাতিলের নিয়ম

হেবা/দান সম্পাদনের উপাদান সমূহঃ-

(১) দাতা জীবিত থাকার মধ্যে দান কার্য সম্পন্ন হতে হবে।
(২) হেবা/দান গ্রহণের আগেই দাতা মৃত্যু করলে দানটি বাতিল বলে গণ্য হবে।
(৩) সম্পত্তি দান করার সময় উক্ত সম্পত্তিতে দাতার মালিকানা ও দখল থাকতে হবে।
(৪) দানটি দাতা কর্তৃক স্বেচ্ছাকৃত হতে হবে।
(৫) সম্পত্তিটির দাতাকে সুস্থ মস্তিস্কসম্পন্ন ও সাবালক হতে হবে।
(৬) দান গ্রহীতা মানসিক ভারসাম্যহীন বা নাবালক হলে তার পক্ষে গ্রহীতার অভিভাবক দানটি গ্রহন করতে পারবেন।
হেবা / দান দলিল বৈধ হওয়ার শর্তবলী:-

(১)দাতা কর্তৃক দানের (ইজাব) ঘোষণা প্রদান করলে।
(২) গ্রহীতার পক্ষ হতে দান গ্রহন /(কবুল) করলে।
(৩ গ্রহীতাকে দানকৃত সম্পত্তির দখল প্রদান করলে।

হেবা দলিল বাতিল করা যাবে কি?

হেবা দলিল বাতিল করার নিয়ম
হেবা দলিল বাতিল করার নিয়ম

দখল হস্তান্তরের পূর্বে হেবা দলিল বাতিল করা যায় এবং হেবা/দান গ্রহণের পূর্বে গ্রহীতা মারা গেলে দানটি বাতিল হয়ে যায়।

হেবা দলিল বাতিল করা যাবে না কখন ?

(১) হেবা/দানকৃত সম্পত্তিটির হস্তান্তর দাতা-এবং  গ্রহীতা স্বামী বা স্ত্রী হলে।
(২) গ্রহীতা মৃত্যূবরণ করলে।
(৩) দাতা-গ্রহীতার মধ্যে বিবাহের অযোগ্য সম্পর্ক থাকলে।
(৪) হেবা/দানকৃত সম্পত্তি গ্রতীতা কর্তৃক বিক্রি বা হস্তান্তর করা হল।
(৫) হেবাকৃত সম্পত্তিটি  ধ্বংস হয়ে গেলে।
(৬) হেবাকৃত সম্পত্তির মূল্য বেড়ে গেলে।

হেবা/দান দলিলের মাধ্যমে প্রাপ্ত জমি কি বিক্রয়যোগ্য ?

হেবা/দানকৃত জমি গ্রহীতা যে কোন ভাবেই হস্তান্তর করতে পারবে / বিক্রি করতে পারবে।

পুরো সম্পত্তি দান করা যায় কি ?

হেবা দলিল বাতিল করার নিয়ম
হেবা দলিল বাতিল করার নিয়ম

উদাহরণস্বরূপ আব্দুল আলিমের একটি মাত্র মেয়ে আছে।তাঁর আর কোনো সন্তান নেই ।একটি কলেজে লেখাপড়া করেন তাঁর মেয়ে। আব্দুল আলিম তাঁর সকল সম্পত্তি মেয়েকে দিয়ে যেতে চান।আব্দুল আলিমের দুই ভাই এবং ভাইয়ের ছেলেরা জীবিত রয়েছে কিন্তু আব্দুল আলিমের ভাই কিংবা ভাইয়ের ছেলেরা আব্দুল আলিমের সম্পত্তির অংশীদার হোক, এটি আব্দুল আলিম মোটেও চান না। এখন তিনি কী করবেন?

আব্দুল আলিম জীবিতাবস্থায় তাঁর একমাত্র মেয়েকে পুরো সম্পত্তি দান করে দিতে পারবেন কি?

মুসলিম আইনে দানকে হেবা বলা হয়। আইন অনুযায়ী, আব্দুল আলিম জীবিতাবস্থায় তাঁর পুরো সম্পত্তি মেয়েকে দান করে যেতে পারবেন।

দান কীভাবে করতে হয়?

সম্পত্তি বিক্রয়ের ক্ষেত্রে টাকার বিনিময় হবে, কিন্তু সম্পত্তি দানের ক্ষেত্রে এই ধরনের বিনিময় হবে না। হেবা /দান করতে হলে দাতা এবং গ্রহীতার সম্পূর্ণ ইচ্ছাশক্তি এবং সম্মতি থাকতে হবে।

হেবা/দান করার জন্য শর্তসমূহঃ-

হেবা বা দানকারীকে অবশ্যই দানের ঘোষণা দিতে হবে । যে ব্যক্তিকে সম্পত্তি হেবা বা দান করা হচ্ছে, তাঁকে অবশ্যই সে সম্পত্তি গ্রহণ করতে হবে। দান/ হেবাকৃত সম্পত্তির দখল সঙ্গে সঙ্গে গ্রহীতাকে হস্তান্তর করতে হবে বা বুঝিয়ে দিতে হবে।

সম্পত্তি অপ্রাপ্তবয়স্ক/ নাবালক ব্যক্তিকেও দান করা যায় কিন্তু সম্পত্তি হস্তান্তর করা যাবে না যত দিন পর্যন্ত না উক্ত সম্পত্তি গ্রহীতা প্রাপ্তবয়স্ক হয়।হেবা/দানের ক্ষেত্রে বৈধ অভিভাবককে উক্ত সম্পত্তি হস্তান্তর করতে হবে এবং পরবর্তী সময়ে নাবালক ব্যক্তি প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর উক্ত সম্পত্তি হস্তান্তর করতে পারবে বা করতে হবে।

BD Law Academy
বিজ্ঞাপন

দান আর উইল এক বিষয় কি?

মুসলিম আইনে দান এবং উইল এক বিষয় নয়।উইল জীবিতাবস্থায় কার্যকর করা যায় না কিন্তু হেবা/দান মৃত্যুর পূর্বে কার্যকর/বলবৎ করা যায় । তবে দানের ক্ষেত্রে জীবিতাবস্থায় সম্পত্তি গ্রহীতাকে হস্তান্তর করে দিতে হবে।

মুসলিম আইন অনুযায়ী উইলের ক্ষেত্রে উত্তরাধিকারীদের অনুমতি ছাড়া সম্পত্তির এক-তৃতীয়াংশের বেশি সম্পত্তি কার্যকর/বলবৎ করা যাবে না , কিন্তু হেবা বা দানের ক্ষেত্রে পুরো সম্পত্তিই করা যাবে।

হেবা দলিল বাতিল করার নিয়ম এর সাথে জেনে নিন দলিল কত প্রকার ও কি কি?

হেবা/দানের দলিল নিবন্ধন পদ্ধতিঃ-

হেবা বা দানকৃত সম্পত্তি রেজিস্ট্রি করা বাধ্যতামূলক এটি ২০০৫ সালের ১ জুলাই থেকে কার্যকর করা হয়েছে।হেবা/ দানকৃত দলিল অবশ্যই নির্ধারিত ফরমে ও স্ট্যাম্পে সম্পন্ন করতে হবে।হেবা/ দানের দলিল অবশ্যই সংশ্লিষ্ঠ সাব রেজিষ্ট্রার অফিস থেকে রেজিস্ট্রি করতে হবে।সুতরাং হেবা বা দানের দলিল অবশ্যই রেজিষ্ট্রি করা বাধ্যতামূলক।

লেখকঃ ল ফর ন্যাশনস, ইমেইলঃ lawfornations.abm@gmail.com, মোবাইল: 01842459590.

দলিল কি ও কত প্রকার? বিস্তারিত জানুন

 

লেখক পরিচিতি

Responses