সোমবার , ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
সাংবাদিক অপহরণ চেষ্টা, ৮ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

সাংবাদিক অপহরণ চেষ্টা, ৮ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

আগস্ট ১৪, ২০১৫

 

দেশ টিভি ও দৈনিক করতোয়ার জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক মোস্তাকিম ফাররোখকে অপহরণ চেষ্টার অভিযোগে জয়পুরহাট জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফিজুসহ ৮ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) রাত ৯টার দিকে সাংবাদিক মোস্তাকিম ফাররোখ বাদী হয়ে জয়পুরহাট সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলা রেকর্ডের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন।

মামলায় অন্য আসামিরা হলেন- জয়পুরহাট জেলা ছাত্রলীগের সদস্য অপু, জয়পুরহাট সরকারি কলেজের যুবিলী হল শাখা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আবু তাহের, যুগ্ম আহ্বায়ক রাকিব, কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সদস্য মিলন, পৌর ছাত্রলীগ নতুনহাট শাখার যুগ্ম-আহ্বায়ক সাগর, জয়পুরহাট সরকারি কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্র ও ছাত্রলীগ কর্মী আব্দুল মোমিনসহ আরও দুই ছাত্রলীগ নেতাকর্মী।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার (১২ আগস্ট) রাত আনুমানিক ৮টার সময় সাংবাদিক মোস্তাকিম ফাররোখ পেশাগত কাজে ক্যামেরা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় দেখেন, উল্লিখিত ছাত্রলীগ নেতারা বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে নিজেদের মধ্যে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করছিলেন। এ সময় তাদের গালাগাল বন্ধ করে স্থান ত্যাগ করার অনুরোধ জানান তিনি।

কিন্তু কিছু বুঝে উঠার আগেই ছাত্রলীগ নেতারা তার ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ল্যাপটপ ও ক্যামেরা কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন এবং তাকে অপহরণ করে নতুন হাট এলাকায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। এ সময় তারা তার বাড়ি-ঘর ভাংচুরেরও হুমকি দেন। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে আসামিরা পালিয়ে যান।

সাংবাদিক মোস্তাকিম ফাররোখ বলেন, এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ কয়েকজন নেতাকে অবগত করা হলে তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আমাকে অপহরণ চেষ্টার প্রমাণ পান। পরে তারা দোষীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ারও আশ্বাস দেন।

জয়পুরহাট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকারিয়া হোসেন রাজা বলেন, একজন সাংবাদিকের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের সত্যতা প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে জরুরি সভা ডেকে দোষীদের বহিষ্কারের নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট নৃপন্দ্রেনাথ মন্ডল বলেন, এ হামলার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিকালে এক জরুরি সভা থেকে ছাত্রলীগের সব সংবাদ বর্জন এবং দোষীদের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জয়পুরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, এ ঘটনায় একটি অপহরণ চেষ্টার মামলা দায়ের হয়েছে। তদন্ত করে দোষীদের গ্রেফতার ও আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*