বৃহস্পতিবার , ২১ মার্চ ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
নীলস বাংলাদেশ’র উদ্যোগে আনোয়ারায় ‘লিগ্যাল অ্যাওয়ারনেস প্রোগ্রামে ব্যাপক সাড়া

নীলস বাংলাদেশ’র উদ্যোগে আনোয়ারায় ‘লিগ্যাল অ্যাওয়ারনেস প্রোগ্রামে ব্যাপক সাড়া

এপ্রিল ২৭, ২০১৮

চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ দ্যা নেটওয়ার্ক ফর ইন্টারন্যাশনাল ল স্টুডেন্ট (নীলস) বাংলাদেশ এর অন্যতম “আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় চট্রগ্রাম” চ্যাপ্টার এর উদ্যোগে ‘লিগ্যাল অ্যাওয়ারনেস প্রোগ্রাম’ চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা উপজেলাধীন “চাতরী ইউনিয়ন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়” এর হল রুমে অনুষ্ঠিত হয়।
ছাত্রছাত্রীদেরকে আইনি সচেতনতামুলুক আলোচনা মনোযোগ দিয়ে শুনে নিজেকে, পরিবার ও সমাজকে সচেতন করার উদাত্ত  আহ্বান জানিয়ে এবং লিগ্যাল অ্যাওয়ারনেস প্রোগ্রাম অত্র স্কুলকে ভেন্যু হিসেবে নির্বাচিত করায় ”নীলস আইআইইউসি চ্যাপ্টার”কে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রোগ্রামের শুভ উদ্ভোধন করেন অত্র স্কুলের প্রধান শিক্ষক জানাব ইরফান চৌধুরি।

উদ্ভোধনের পরেই শুরু হয় মনোমুগ্ধকর মুল আলোচনা পর্ব। প্রোগ্রামের কি-নোট স্পিকার ছিলেন মেহেদি হাসান, কাজী ওয়ালিদ এবং আবদুল্লাহ আল সায়েম।

আলোচনায় বাল্যবিবাহ, যৌতুক, সাইবার ক্রাইম, নারী ও শিশু নির্যাতন, ইভটিজিং সহ আরও নানান আইনি বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। মুল আলোচনা শেষে ছিল কুইজ প্রতিযোগিতা এবং প্রশ্নোত্তর পর্ব।

সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ পর্বে  অত্র স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র তরুণ সমাজ সেবক জনাব আনিসুল ইসলাম বলেন, আজকের আইনি সচেতনতামুলুক প্রোগ্রাম তখনই সফল হবে, যদি আমরা আইন মেনে চলি এবং অপরজনকে সচেতন করি। এবং বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন টিমের সদস্যরা।

“চাতরী ইউনিয়ন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়কে” ভেন্যু হিসেবে নির্বাচনে অগ্রণী ভুমিকায় ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি’র সম্মানিত কার্যকরী পরিষদ সদস্য জনাব এডভোকেট হাসান কায়েস এবং এডভোকেট শহিদুল ইসলাম। সহযোগিতায় ছিলেন মোহাম্মদ আদিল।
প্রোগ্রাম সঞ্চালনায় ছিলেন তৌকির নিশাত। টিমের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন- আরিফুল হক তায়েফ, আজিমুর রহমান ভুঁইয়া, বাপ্পি খান, আলি মুর্তজা, শিশির, আবদুল্লাহ আল মামুন। এবং ফিমেইল সেকশনের দায়িত্বে ছিলেন- নাজমা বেগম, সাজিয়া আহমেদ সুচনা, তামান্না নুসরাত, রুহি জান্নাত ও আফরিন। ‘নীলস বাংলাদেশ’ পক্ষে উপস্থিত ছিলেন সেন্ট্রাল বোর্ডের সম্মানিত ট্রেজারার জনাব মোহাম্মদ সাজ্জাদ ।

প্রোগ্রামের টিম লিডার হিসেবে ছিলেন ওবাইদুল আকবর সম্রাট। তিনি বলেন- এই প্রোগ্রাম আয়োজনে অনুমতি দেওয়ায় স্কুল ম্যানেজিং কমিটি ও প্রধান শিক্ষক সহ সকলকে ধন্যবাদ এবং আগামীতেও স্কুলকে পাশে পাবে বলে আশা ব্যক্ত করেন।
পুরো প্রোগ্রামের কনভেনর ছিলেন মিহির মিশকাত।

dav

উল্লেখ্য যে, দ্যা নেটওয়ার্ক ফর ইন্টারন্যাশনাল ল স্টুডেন্টস (নীলস) ৬টি মহাদেশের ২৬টি দেশে আন্তর্জাতিকভাবে আইনের শিক্ষার্থীদের জন্য বিভিন্ন কর্মশালা, প্রতিযোগিতা, ডেলিগেশান প্রোগ্রাম, রেসিডেন্শিয়াল স্কুল প্রোগ্রাম, আইনি সহায়তামূলক কার্যক্রম এবং আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজন করার মাধ্যমে আইন শিক্ষায় অবদান রেখে থাকে। বর্তমানে ‘নীলস বাংলাদেশ’ এর প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে আছেন জনাবা নাসরিন সুলতানা এবং সেক্রেটারি হিসেবে আছেন জনাব রাফিউল ইসলাম।

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.