রবিবার , ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
“নীলস-আইআইইউসি’র  নিউ মেম্বারদের ওরিয়েন্টেশন সম্পন্ন।

“নীলস-আইআইইউসি’র নিউ মেম্বারদের ওরিয়েন্টেশন সম্পন্ন।

মে ১১, ২০১৮

“দ্যা নেটওয়ার্ক ফর ইন্টারন্যাশনাল ল স্টুডেন্টস – নীলস বাংলাদেশের অন্যতম চ্যাপ্টার “নীলস আই আই ইউ সি” চ্যাপ্টারের মাসিক সাধারণ সভা এবং নিউ মেম্বারদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম বৃহস্পতিবার (১০ মে ১৮) ‘ইনিস্টিটিউট ফর লিগ্যাল এডুকেশন’  বিজেএস কোচিং এর হল রুমে সম্পন্ন হয়েছে । সাধারণ সভার শুরুতে আই আই ইউ সি চ্যাপ্টারের নতুন মেম্বারদের জন্য একটি ইন্ট্রোডাক্টরি সেশন পরিচালনা করেন আই আই ইউ সি চ্যাপ্টারের হেড এবং নীলস বাংলাদেশের কোর অর্গানাইজার আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম’র এলএলএম’র ছাত্র জনাব মেহেদী হাসান। ইন্ট্রোডাক্টরি সেশনের পূর্বে সূচনা বক্তব্য রাখেন কোর মেম্বার সুমাইয়া বিনতে জাহাঙ্গীর এবং মোহাম্মদ আদিল।

ইন্ট্রোডাক্টরি সেশন শেষে মাসিক সাধারণ সভা পরিচালনা করেন নীলস বাংলাদেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট (মার্কেটিং) , আই আই ইউ সি চ্যাপ্টারের প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রাক্তন চ্যাপ্টার হেড জনাব মিহির মিশকাত। সাধারণ সভায় জনাব মিহির মিশকাত মেম্বারদের একাডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি এক্সট্রা কারিকুলার এক্টিভিটিস এবং পার্সোনাল স্কিল ডেভলাপমেন্টের উপর গুরুত্বারোপ দিয়ে বলেন, “আমাদেরকে একাডেমিকভাবে এগিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি আমরা যে আইন বিষয়ক আন্তর্জাতিক একটা সংগঠনের রেজিস্ট্রেড মেম্বার সেটা মনে ধারণ করতে হবে। তার জন্য আমাদের একাডেমিক রেজাল্টের পাশাপাশি এক্সট্রা কারিকুলার এক্টিভিটিস হিসেবে ডিবেট, ম্যুটিং, পাবলিক স্পিকিং, মান (MUN) ইত্যাদিতে নিজেদেরকে সংযুক্ত রাখতে হবে। সর্বোপরি নিজেকে লিডার হিসেবে যোগ্য করে তুলতে হবে”

মাসিক সাধারণ সভা শেষে আই আই ইউ সি চ্যাপ্টার থেকে সদ্য নীলস বাংলাদেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট (মার্কেটিং) নির্বাচিত হওয়া জনাব  মিহির মিশকাতের জন্য একটি সারপ্রাইজ প্লানের আয়োজন করেন চ্যাপ্টারের কোর অর্গানাইজারগণ। সারপ্রাইজ প্লানিংয়ে সর্বপ্রথম ভাইস প্রেসিডেন্টকে (মার্কেটিং) ফুল দিয়ে বরণ করে নেন চ্যাপ্টারের বিভিন্ন সেমিস্টারের টীম লিডার নুসরাত তামান্না, নাজমা বেগম, সাজিয়া আহমেদ সূচনা,ফারজানা ইসলাম মাইশা ও হাফসা চৌধুরী।  ফুল দিয়ে বরণ শেষে মিহির মিশকাত’র সাথে কেক কেটে উদযাপন করেন  আইন বিভাগের ৩১ তম ব্যাচ এবং চ্যাপ্টারের সবচেয়ে জুনিয়র মেম্বাররা (ফার্স্ট সেমিস্টার)।  সর্বশেষ মিহির মিশকাতকে ক্রেস্ট দিয়ে শুভেচ্ছা জানান চ্যাপ্টার প্রধান মেহেদী হাসান এর নেতৃত্বে চ্যাপ্টারের অন্যান্য কোর অর্গানাইজার আবদুলাহ আল সায়েম, ওবাইদুল আকবর সম্রাট, কাজি ওয়ালিদ, আরিফুল হক  তায়েফ প্রমুখ।

নতুনদের ইন্ট্রোডাক্টরি সেশন এবং মাসিক সাধারণ সভার সঞ্চালক ছিলেন চ্যাপ্টারের অন্যতম  কোর অর্গানাইজার কাজি ওয়ালিদ হোসাইন।সারপ্রাইজ প্লানিংয়ের সঞ্চালক ছিলেন নীলস বাংলাদেশের কোর অর্গানাইজার, নীলস লিগ্যাল এওয়ারনেস প্রোগ্রামের টীম লিডার মোঃ ওবাইদুল আকবর সম্রাট। সারপ্রাইজ প্লানিংয়ের প্লানার ছিলেন নীলস বাংলাদেশের কোর অর্গানাইজার আব্দুল্লাহ আল সায়েম।

উল্লেখ্য যে, দ্যা নেটওয়ার্ক ফর ইন্টারন্যাশনাল ল স্টুডেন্টস (নীলস)একটি আন্তর্জাতিক, স্বাধীন, অরাজনৈতিক, অলাভজনক প্রতিষ্ঠান যা আইন ছাত্রদের দ্বারা পরিচালিত হয়। নীলস ৬টি মহাদেশের ২৬টি দেশে আন্তর্জাতিকভাবে আইনের শিক্ষার্থীদের জন্য বিভিন্ন কর্মশালা, প্রতিযোগিতা, ডেলিগেশান প্রোগ্রাম, রেসিডেন্শিয়াল স্কুল প্রোগ্রাম, আইনি সহায়তামূলক কার্যক্রম এবং আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজন করার মাধ্যমে আইন শিক্ষায় অবদান রেখে থাকে। বর্তমানে ‘দ্যা নেটওয়ার্ক ফর ইন্টারন্যাশনাল ল স্টুডেন্টস’ বাংলাদেশের ২৫টি পাবলিক-প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে শাখা রয়েছে

-বাপ্পি খান, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*