সোমবার , ২২ জুলাই ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
ফেলানী হত্যার আট বছর আজ

ফেলানী হত্যার আট বছর আজ

জানুয়ারি ৭, ২০১৯

ফেলানী হত্যার আট বছর আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুড়িগ্রাম সীমান্তে কিশোরী ফেলানী হত্যার আট বছর আজ। কিন্তু সুদীর্ঘ আট বছর পেরিয়ে গেলেও মেয়ে হত্যার ন্যায়বিচার পাননি বাবা নুরুল ইসলাম। ২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার অনন্তপুর সীমান্তে তাকে নির্মমভাবে খুন করা হয়।

ভারতের ১৮১ ব্যাটালিয়নের চৌধুরীহাট ক্যাম্পের বিএসএফ জওয়ান অমিয় ঘোষের গুলিতে নিহত হয় ফেলানী। কাঁটাতারে ফেলানীর লাশ ঝুলে থাকার দৃশ্য দেশ-বিদেশের গণমাধ্যমে উঠে এলে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) দাবির মুখে ২০১৩ সালের ১৩ আগস্ট ভারতের কোচবিহারের বিএসএফের বিশেষ আদালতে ফেলানী হত্যার বিচারকাজ শুরু হয়। ওই বছরের ৬ সেপ্টেম্বর অভিযুক্ত বিএসএফ সদস্য অমিয় ঘোষকে বেকসুর খালাস দেয় আদালত।

বিএসএফের বিশেষ আদালতে মেয়ে হত্যার ন্যায়বিচার না পেয়ে ২০১৫ সালে ভারতের উচ্চ আদালতে রিট করেন বাবা নুরুল ইসলাম। এখনো মামলাটি বিচারাধীন।

এ/কে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.