মঙ্গলবার , ২৫ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
চিরায়ত ঐতিহ্য ভেঙে বাসে টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন মন্ত্রীরা

চিরায়ত ঐতিহ্য ভেঙে বাসে টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন মন্ত্রীরা

জানুয়ারি ৯, ২০১৯

চিরায়ত ঐতিহ্য ভেঙে বাসে টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন মন্ত্রীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: নতুন সরকারের সব কিছুতেই যেন থাকছে নতুন নতুন চমক। এবারের মন্ত্রিপরিষদ একটা নতুন চমক। ঠাঁই মেলেনি অনেক পোড় খাওয়া নেতাদের। সেখানে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে নতুন এবং বঞ্চিত এলাকার নেতাদের। এদের মধ্যে সাত একবোরেই আনকোরা, এবারই প্রথম এমপি হয়েছেন।

এ যেনো তারই ধারাবাহিকতা। চিরায়ত ঐতিহ্য ভেঙে বাসযোগে আজ বুধবার ভোরে মন্ত্রীরা টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন মন্ত্রিপরিষদের নতুন সদস্যরা। এর আগে মন্ত্রিপরিষদের নতুন সদস্যরা মঙ্গলবার বাসযোগে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে গেছেন।

আজ বুধবার ভোর পৌনে ৭টার দিকে রাজধানীর জাতীয় সংসদ ভবন থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা হন তারা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা রণজিৎ কুমার গণমাধ্যমকে জানান, সকাল ৭টার দিকে জাতীয় সংসদ ভবনের মিডিয়া সেন্টারের সামনে থেকে মন্ত্রিসভার সদস্যরা টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা করেন। এনা পরিবহনের তিনটি বাসে করে সেখানে যাচ্ছেন তারা। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টুঙ্গিপাড়া পৌঁছানোর কথা রয়েছে তাদের। জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, দোয়া ও মোনাজাত শেষে ওই বাসে করেই মন্ত্রীরা ঢাকায় ফিরবেন।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকাল ১০টায় তেজগাঁও বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারযোগে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে যাত্রা করবেন। সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা কমপ্লেক্স মাঠে নির্মিত হেলিপ্যাডে অবতরণ করবেন তিনি।

বেলা ১১টায় নতুন মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের নিয়ে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। পরে সেখানে ফাহেতা পাঠ ও বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভার সদস্যরা।

একটি বাসের সামনের সিটে বসেছেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বাম পাশের সিটের প্রথমে বসেছেন প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

এ বিষয়ে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক মঙ্গলবার রাতে গণমাধ্যমকে বলেন, বুধবার আমরা বাসে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যাব। তিনি বলেন, আমরা মঙ্গলবার একসঙ্গে বাসে করে জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য গেছি। এতে সময়-খরচ যেমন বেচেছে, আলাদা করে গাড়িও ব্যবহার করতে হয়নি। জনসাধারণের ভোগান্তিও কমেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.