শনিবার , ২৪ আগস্ট ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
ভাল আইনজীবীদের যে ৭ টি গুণাবলী থাকা উচিত

ভাল আইনজীবীদের যে ৭ টি গুণাবলী থাকা উচিত

মার্চ ২৩, ২০১৯

কর্মজীবনে সফলতা পেতে প্রত্যেকেরই কিছু দক্ষতা অবশ্যই থাকা উচিত। আর একজন আদর্শ আইনজীবী হতে গেলে দক্ষতা এবং বিচক্ষণতার কোন বিকল্প নেই। দেখে নিন সমাজের প্রথম শ্রেণীর নাগরিক হিসেবে একজন আইনজীবীর যে সমস্ত গুণাবলী অবশ্যই থাকা উচিত।

১.  ভাল যোগাযোগ দক্ষতা

একজন আইনজীবীকে অবশ্যই কথোপকথনে চৌকশ হতে হবে। এছাড়াও ভাল লিখিত যোগাযোগ দক্ষতা থাকতে হবে এবং ভাল শ্রোতা হতে হবে। আদালতে জুরি এবং বিচারকদের সাথে যুক্তি তর্কে জয়ী হওয়ার জন্য পাবলিক স্পিকিং এর দক্ষতা অপরিহার্য। যোগাযোগ এবং কথা বলার দক্ষতা সমূহ মোটিং বা  জনসাধারণের সাথে কথোপকথনের মতো ক্রিয়াকলাপ গুলিতে অংশ নেয়ার মাধ্যমে অর্জন করা যেতে পারে। একজন আইনজীবীকে অবশ্যই পরিষ্কারভাবে, যথাযথভাবে এবং সংক্ষেপে লিখতে সক্ষম হতে হবে, কারণ তাকে প্রায়শই বিভিন্ন আইনি দলিল তৈরি করতে হয়। ক্লায়েন্ট  কী বলছে তা বিশ্লেষণ করতে বা জটিল সাক্ষ্য অনুসরণ করতে সক্ষম হতে হবে এবং একজন আইনজীবীর অবশ্যই ভাল শ্রবণ দক্ষতা থাকতে হবে।

২.  বিচার করার ক্ষমতা

অনেক সময়ই ক্লায়েন্ট হয়ত মামলা সম্পর্কে আপনাকে খুব বেশী তথ্য দিতে পারবে না। কিন্তু সীমিত তথ্য নিয়েই যৌক্তিক সিদ্ধান্ত নিতে বা সম্ভাব্য ফলাফল অনুমান করতে সক্ষম হতে হবে। একজন আইনজীবি হিসাবে এই গুণটি থাকা অপরিহার্য এছাড়াও আপনার নেয়া সিদ্ধান্ত গুলো সমালোচকদের দৃষ্টিতে বিবেচনা করতে সক্ষম হতে হবে যাতে আপনি আপনার যুক্তির সম্ভাব্য দুর্বলতা সমূহ ধরতে পারেন।  একইভাবে বিরোধী পক্ষের যুক্তির মধ্যে দুর্বল পয়েন্ট চিহ্নিত করতে সক্ষম হতে হবে।

৩.  বিশ্লেষণাত্মক দক্ষতা

আইন বিষয়ে অধ্যয়ন এবং অনুশীলন উভয় ক্ষেত্রেই তথ্য নিয়ে প্রচুর পরিমাণে বিশ্লেষণ করতে হয়। অনেক সময় একাধিক যুক্তিসঙ্গত উপসংহারে পৌছাতে হয় এবং একটি পরিস্থিতির সমাধান করার জন্য একাধিক উদাহরণ টানতে হয়। সুতরাং একজন আইনজীবীর অবশ্যই সবচেয়ে উপযুক্ত উদাহারণ তুলে ধরা এবং তা মূল্যায়নের দক্ষতা থাকতে হবে।

৪.  গবেষণা দক্ষতা

একজন আইনজীবীর ক্লায়েন্টদের চাহিদা বুঝা এবং সে অনুযায়ী আইনি কৌশল প্রস্তুত করার জন্য দ্রুত এবং কার্যকরভাবে গবেষণা করতে সক্ষম হওয়া আবশ্যক। আইনি কৌশল প্রস্তুতির জন্য প্রচুর তথ্য বিশ্লেষণ এবং বোঝার সক্ষমতা থাকতে হবে এবং, সেগুলিকে কার্যকর করতে জানতে হবে।

৫.  মানুষের সাথে চলার দক্ষতা

আইন কোন বিমূর্ত পেশা নয়। দিন শেষে আইনজীবীদেরকে জনগণের সাথে কাজ করতে হয়, জনগণের পক্ষ হয়ে কাজ করতে হয়,  যে সিদ্ধান্ত গুলো জনগণের জীবনকে প্রভাবিত করে তা  নিয়েই কাজ কতে হয়। তাই একজন ভাল আইনজীবির  মানুষকে বুঝাতে এবং বুঝতে সক্ষম হতে হবে। এটি তাকে বিচারকদের প্রতিক্রিয়া বুঝতে এবং সাক্ষীদের সততা নিরুপণ করতে সহায়তা করে।

৬.  অধ্যবসায়

শুধু কর্মক্ষেত্রে নয়, এমনকি একজন আইনজীবী হওয়ার জন্য যে পড়াশোনা করতে হয় সেখানেও অধ্যবসায়ের কোন বিকল্প নেই।  তাই কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করার আগেই একজন আইনজীবীকে অধ্যবসায়ী হতে হয়। এবং অঙ্গীকারের একটি বড় অংশ নেয় এবং এটি এমনকি আপনিও কাজ শুরু করার আগে! তাই পেশা জীবনে সফলতা পেতে একজন আইনজীবীর জন্য অধ্যবসায় এবং  দৃঢ়সংকল্পের কোন  বিকল্প নেই।

৭.  সৃজনশীলতা

একজন ভাল আইনজীবীরা শুধুমাত্র লজিক্যাল এবং বিশ্লেষণাত্মক ক্ষমতা থাকলেই চলবে না। তার মধ্যে  যে কোন সমস্যার সমাধানের জন্য দুর্দান্ত সৃজনশীলতাও থাকতে হবে। সেরা সমাধানটি অনেক সময় আউট অব দ্য বক্স ও চিন্তা করতে হয়। আর এখানেই সৃজনশীলতার  প্রয়োজন।

তথ্য সূত্রঃ ব্রিটিশ লেখক সোফিয়া গেইমার এর লেখা থেকে অনুবাদকৃত।

অনুবাদ করেছেন এড. মোখলেছুর রহমান (সোহেল)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.