বুধবার , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে আম বাগান পাহারা দেবে পুলিশ

ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে আম বাগান পাহারা দেবে পুলিশ

এপ্রিল ১৬, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীসহ দেশের বড় আম বাগানগুলোতে কেমিক্যাল ব্যবহার রোধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েনে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন প্রত্যহার করে নিয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ। একই সঙ্গে একজন ম্যাজিস্ট্রেটের তদারকিতে পুলিশ পাহারার ব্যবস্থার নির্দেশ দিয়েছেন চেম্বার জজ আদালত।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ।

আজ মঙ্গলবার রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের ওপর শুনানি শেষে আপিল বিভাগের বিচারপতি নুরুজ্জামানের চেম্বার জজ আদালত এ আদেশ দেন।

মনজিল মোরসেদ জানান, রাজশাহী অঞ্চলের আম বাগানগুলোতে কেমিক্যাল ব্যবহার রোধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন করতে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন প্রত্যহার করে নিয়েছেন।

গত সোমবার (১৬ এপ্রিল) হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ ওই আবেদনটি করে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার জানান, হাইকোর্টের আদেশ সঠিক হয়েছে। এ কারণে আমরা স্থগিতের আবেদন প্রত্যাহার করে নিয়েছি।

রাজশাহীসহ দেশের বড় আমবাগানে কেমিক্যালের ব্যবহার রোধে সাতদিনের মধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তদারকি করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

গত ৯ এপ্রিল আমে যেন কোনো ধরনের ক্ষতিকর রাসায়নিক প্রয়োগ না হয় সেটি নিশ্চিতে রাজশাহীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের আম বাগানে পুলিশ মোতায়েনের নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে সাতদিনের মধ্যে রাজশাহীর বিভাগীয় কমিশনার ও ডিআইজিকে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়।

এছাড়া ফলের বাজার ও আড়তে আমসহ অন্যান্য ফলে রাসায়নিক মেশানো বা ব্যবহার বন্ধ হচ্ছে কিনা- তা নজরদারি করতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও র্যাবের সমন্বয়ে একটি পর্যবেক্ষণ টিম গঠন করতে বলা হয়।

পুলিশের আইজি, বিএসটিআই, র্যাব মহাপরিচালককে এ আদেশ বাস্তবায়ন করে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন আদালত।

এ সংক্রান্ত এক রিটের সম্পূরক আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ৯ এপ্রিল বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এবং রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মদ সাইফুল আলম।

২০১২ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে মনজিল মোরসেদের করা এক রিটের শুনানি শেষে হাইকোর্ট সাত দফা নির্দেশনা দেন। সেখানে আমের মৌসুমে রাসায়নিক ব্যবহার বন্ধ এবং একটি পর্যবেক্ষণ টিম গঠন করতে বলা হয়। যার ধারাবাহিকতায় নতুন করে আমের মৌসুম আসায় আইনজীবী মনজিল মোরসেদ হাইকোর্টে এক সম্পূরক আবেদন করে নির্দেশনা চান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.