বুধবার , ১৯ জুন ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
জামিনে মুক্তিতে কদর বেড়েছে দিনমজুর মতিনের

জামিনে মুক্তিতে কদর বেড়েছে দিনমজুর মতিনের

এপ্রিল ২১, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: বেশ কদর বেড়েছে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার মোচাগড়া গ্রামের দিনমজুর আব্দুল মতিন মিয়ার। সার্বক্ষণিক তার খোঁজ-খবর নিচ্ছেন বিদ্যুৎ বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তারা। তাকে মোবাইলে প্রতিনিয়ত ফোন করে যাচ্ছেন কর্মকর্তারা। এই দিনমজুরের পরিবারের কাউকে চাকরি দেয়ার আশ্বাসও দেয়া হচ্ছে।

ইতিমধ্যে আব্দুল মতিন মিয়ার কাছে ক্ষমা চেয়ে তার বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে গেছে কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বকেয়া বিলের মামলায় গ্রেফতার দিনমজুর আবদুল মতিন মিয়া (৪৫) জামিনে মুক্তি পেয়ে বাড়ি ফেরার পরপরই তার এমন কদর বেড়েছে বলে জানা গেছে।

শনিবার বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মুঈন উদ্দিন ফোনে আব্দুল মতিনের সঙ্গে কথা বলে দুঃখ প্রকাশ করেন।

এই ধরনের ঘটনা যাতে আর না ঘটে, সে জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে সতর্ক করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এছাড়াও এরই মধ্যে কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১-এর জেনারেল ম্যানেজারও দিনমজুর মতিনের বাড়িতে গিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন।

গত মঙ্গলবার রাতে বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ না পেয়েও বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের মামলায় কারাগারে যেতে হয় কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার দিনমজুর আবদুল মতিনকে।

এ নিয়ে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হলে দেশব্যাপী আলোচিত হয়। এ ঘটনায় কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সমিতি-১ চান্দিনা অফিস দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি করে। এই কমিটিকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত শেষ করে রিপোর্ট জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়।

এ বিষয়ে কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি- ১ এর চান্দিনা অফিসের জেনারেল ম্যানেজার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিষয়টি ভুল বোঝাবুঝির কারণে এমনটা হয়েছে। আমরা মামলাটি নিষ্পত্তি করেছি।

এদিকে ভুয়া বকেয়া বিলের কারণে দায়েরকৃত মামলায় তার জেলে যাওয়ার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ তদন্তে প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের ১১ জন লাইনম্যান, লাইন নির্মাণ পরিদর্শক, ওয়্যারিং পরিদর্শক, মেসেঞ্জার, বিলিং সহকারী ও জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ারকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (আরইবি)। এমন পরিস্থিতি সামাল দিতে নিরপরাধ দিনমজুর মতিনের জন্য ভালো কিছু করতে ছুটছেন কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.