মঙ্গলবার , ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
এবার বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে আইএসের হামলার হুমকি

এবার বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে আইএসের হামলার হুমকি

এপ্রিল ২৭, ২০১৯

ডেস্ক রিপোর্ট: শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ বোমা হামলার পর এবার বাংলাদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গে হামলা চালাতে পারে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট। সামাজিক যোগাযোগের অ্যাপস টেলিগ্রামের একটি চ্যানেলে হামলার হুঁশিয়ারি দিয়ে বাংলায় ‘শিগগিরই আসছি’ লেখা একটি পোস্টারও প্রকাশ করেছে এই জঙ্গি সংগঠনটি।

আজ শনিবার দুপুরে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া আইএসের বাংলায় লেখা ওই পোস্টারের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদন বাংলাদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গে সম্ভাব্য হামলার কথা জানিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে ‘শীঘ্রই আসছি, ইনশাল্লাহ…’ লেখা ওই পোস্টারটি প্রকাশ করেছে আইএস। শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ হামলার পর গোয়েন্দা সংস্থা এই পোস্টারটিকে যথেষ্ট গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে। তবে আইএসের সেই পোস্টারটি তাদের প্রতিবেদনে প্রকাশ করেনি সংবাদমাধ্যমটি।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী, জামাত উল মুজাহিদিনের (জেএমবি) সঙ্গে আইএসের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। জেএমবিকে তাদের দলে সদস্য নিয়োগের জন্য কলকাতা ও পশ্চিমবঙ্গে মাঝে মাঝেই তৎপর হতে দেখা যায়। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে কলকাতার বাবুঘাট এলাকা থেকে আরিফুল ইসলাম নামে এক জেএমবি সদস্যকে গ্রেফতার করে দেশটির পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আরিফুল ২০১৮ সালের বুদ্ধগয়া বিস্ফোরণের অন্যতম অভিযুক্ত।

এর আগে গত বছরের জুলাইতে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই) পশ্চিমবঙ্গের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) হাতে গ্রেফতার আইএস-জেএমবির সদস্য মোহাম্মদ মুসিরউদ্দিন একেএম মুসার বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করে। মুসিরউদ্দিন দীর্ঘদিন ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের ত্রিপুর জেলায় আত্মগোপনে ছিলেন। গ্রেফতারের পর জানা যায়, জেএমবির নেতা আমজাদ শেখের সঙ্গে তার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। ২০১৪ সালে বর্ধমান বিস্ফোরণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গত রবিবার খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের ইস্টার সানডের পরবের দিন শ্রীলঙ্কার তিনটি গির্জা ও তারকামানের কয়েকটি হোটেলে আত্মঘাতী বোমা হামলার ঘটনায় ২৯০ জন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৩৬ জন বিদেশি রয়েছে। হামলার দুদিন পর ওই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে জামাত আল-তাওহিদ আল-ওয়াতানিয়া নামের একটি জঙ্গিগোষ্ঠী। এরপরই বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে হামলা চালানোর এ হুমকি দিল মধ্যপ্রাচ্যের এ জঙ্গি গোষ্ঠীটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.