মঙ্গলবার , ১২ নভেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
পাঞ্চালি আদিত্যর বিরুদ্ধে কঙ্গনার ধর্ষণ মামলা

পাঞ্চালি আদিত্যর বিরুদ্ধে কঙ্গনার ধর্ষণ মামলা

জুন ২৮, ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক: ইয়েস বস-এর অভিনেতা আদিত্য পাঞ্চলিকে সবাই চেনেন এক ডাকে। বলিউডে অধিকাংশ ছবিতেই তাকে খলনায়কের ভুমিকায় পেয়েছেন দর্শক। এবার বাস্তব জীবনেই তার বিরুদ্ধে সরব হলেন বলিউডের বিউটি কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত ও তার দিদি। কঙ্গনা রানাওয়াতকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে পুলিশের কাছে জবানবন্দি দিয়েছেন এই অভিনেত্রী। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতারের মুখোমুখি আদিত্য। বৃহস্পতিবার তার নামে এফআইআর করেছে মুম্বাইয়ের ভারসোভা থানার পুলিশ।

অভিযুক্ত আদিত্য’র নামে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬, ৩২৮, ৩৮৪, ৩৪১, ৩৪২, ৩২৩ ও ৫০ ধারায় মামলা হয়েছে। ২০১৭ সালে কঙ্গনা আদিত্যর বিরুদ্ধে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ তুলেছিলেন। সেই মামলার জলই গাড়িছে এতদূর। শোনা যাচ্ছে, যে কোনো সময় গ্রেফতার হতে পারেন এই অভিনেতা।

২০১৭ সালে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হলেও, ধর্ষণের ঘটনাটি আসলে ঘটেছিল ১০ বছর আগে। সেক্ষেত্রে ধর্ষণ হয়েছিল কিনা তা প্রমাণ করাটা প্রায় অনিশ্চিত পুলিশের কাছে। আদিত্য প্রথম থেকেই এটাকে মিথ্যে ধর্ষণের মামলা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। সেই সময় কঙ্গনার বিরুদ্ধে মানহানির মামলাও করেন তিনি।

বুধবারই আদিত্যর করা মানহানির মামলার প্রেক্ষিতে কঙ্গনা রানাউত ও তার বোনের নামে সমন পাঠিয়েছে আন্ধেরি আদালত। আগামী ২৬ জুলাই এই মামলার শুনানিতে তাদেরও হাজির থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সমস্যার সূত্রপাত ঘটে বছর দশেক আগে, ২০১৭ সালে। সেই ঘটনার ভিত্তিতেই এবার আদিত্য কেস-এ নয়া মোড়। অভিনেতা ও প্রযোজক আদিত্য পাঞ্চালির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন বলিউডের বিউটি কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত।

এর আগে এপ্রিল মাসে এক সাক্ষাৎকারে এই নায়িকা ও তার দিদি অসন্মান জনক মন্তব্য করায় মানহানির মামলা করেছিলেন আদিত্য ও তার স্ত্রী জারিনা ওয়াহাব। আগামী ২৬ শে জুলাই ফাইল হওয়া মানহানি মামলার শুনানি হবার কথা রয়েছে।

তবে অভিনেতা আদিত্য পাঞ্চলি যদি কঙ্গনার সাথে কয়েকবার অশ্লীল ব্যবহার ও ধর্ষণ করেন তাহলে এতদিনে কেন মুখ খোলেননি তিনি তাই নিয়েও প্রশ্ন তুলছে বি টাউনের একাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.