বুধবার , ২০ নভেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
আসামের নাগরিকত্ন হারানোদের জন্য ১০০০ ট্রাইব্যুনাল

আসামের নাগরিকত্ন হারানোদের জন্য ১০০০ ট্রাইব্যুনাল

আগস্ট ৩১, ২০১৯

ডেস্ক রিপোর্ট: ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামের জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। চূড়ান্ত এই তালিকায় বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৫৭ মানুষ। ফলে তাদের ভবিষ্যত অনিশ্চিত। প্রকাশিত এনআরসিতে জায়গা পেয়েছেন ৩ কোটি ১১ লাখ ২১ হাজার ৪ জন।

শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় (বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ১০টা) এই তালিকা প্রকাশ করা হয়।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যাদের নাম তালিকা থেকে বাদ গেছে তাদের পক্ষে যুক্তি শোনার জন্য পর্যায়ক্রমে কমপক্ষে এক হাজার ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হবে; এর মধ্যে ১০০টি ট্রাইব্যুনাল ইতোমধ্যেই খুলে দেওয়া হয়েছে এবং আরও ২০০টি আগামী সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই স্থাপন করা হবে।

আসাম সরকারের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, জাতীয় নাগরিকত্ব নিবন্ধনে(এনআরসি) তিন কোটি ১১ লাখ লোক আবেদন করেছিলেন, সেখান থেকে ১৯ লাখকে বাদ দেয়া হয়েছে। রাজ্যটির ৪০ লাখ লোকের ভাগ্য নির্ধারণে বছর চারেক আগে এই তালিকা বাস্তবায়নের কার্যক্রম শুরু হয়। এতে আসামে ভারতীয়দের শনাক্ত করার কথা বলা হয়েছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, অবৈধ বাংলাদেশিদের চিহ্নিত করে ফেরত পাঠানোর লক্ষ্যেই জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) চূড়ান্ত করা হচ্ছে।

তালিকায় নাম না-থাকাদের এখনই বের করে দেয়া হবে না বলে কর্মকর্তারা বারবার আশ্বস্ত করলেও এর মাধ্যমে আসামের সংখ্যালঘু বাঙালি বিশেষত মুসলমানদের ‘উইচ হান্টিং’-এর শিকার হতে হবে বলে আশঙ্কা করছেন পর্যবেক্ষকরা।

সংশোধিত তালিকা থেকে বাদ পড়া আবেদনকারীরা তালিকায় নাম ওঠাতে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আপিল করতে পারবেন বলে আগেই জানিয়েছেন রেজিস্ট্রার জেনারেল অব ইন্ডিয়া শৈলেশ। তিনি বলেন, আপত্তি করার জন্য জনগণকে পর্যাপ্ত এবং যথেষ্ট সুযোগ দেয়া হবে।

এছাড়াও, যারা ট্রাইব্যুনালে মামলায় হেরে যাবেন তারা উচ্চ আদালত এবং তারপর সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করতে পারবেন। সকল আইনি বিকল্প শেষ না হওয়া পর্যন্ত কাউকেই বিদেশি হিসেবে ঘোষণা করা হবে না বলে আশ্বস্ত করেছে মোদি সরকার। সূত্র: এনডিটিভি

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.