সোমবার , ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের গুলিতে যুবক নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের গুলিতে যুবক নিহত

সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় এক যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। নিহত ব্যক্তির নাম সুমন মিয়া (৩৫)। তিনি ওই গ্রামের মৃত মনু মিয়ার ছেলে।

সোমবার রাত একটার দিকে উপজেলার সলিমাবাদ ইউনিয়নের পাইকারচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় একজন গুলিবিদ্ধসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। তারা হলেন, আব্দুল আওয়াল (৬০), কামরুজ্জামান (৩৭), জালাল মিয়া (৪০), মনির হোসেন (৩৫) ও করিম (৪০)।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে পার্শ্ববর্তী কুমিল্লা জেলার হোমনা উপজেলার ঘাগুটিয়া গ্রামের ইকবাল হোসেন ও সলিমাবাদ ইউনিয়নের তাতুয়াকান্দি গ্রামের অলি মেম্বারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার রাতে ইকবালের সহযোগীরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তাতুয়াকান্দি গ্রামের পার্শ্ববর্তী পাইকারচর গ্রামে দানা মিয়ার বাড়িতে হামলা করে। এ সময় হামলাকারীরা সুমন ও আওয়াউলকে গুলি করে। বাকিদের টেঁটা ও দা দিয়ে জখম করা হয়। পরে আহতদেরকে উদ্ধার করে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমনকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকি আহতদের ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়।

বাঞ্ছারামপুর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে জানান, এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

ডাকাতের হামলায় গৃহকর্তা নিহত: এদিকে লক্ষ্মীপুরে ডাকাতদের হামলায় এক গৃহকর্তা নিহত হয়েছেন। নিহত গৃহকর্তার নাম আতিকউল্ল্যাহ। তিনি ওই এলাকার মৃত মুসলিম মিয়ার ছেলে।

সোমবার গভীর রাতে পৌর শহরের ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম লক্ষ্মীপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় চার ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও প্রায় তিন লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায় ডাকাতরা।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সোমবার দিবাগত রাত আনুমানিক তিনটার দিকে ঘরের দরজা ভেঙে আতিকউল্ল্যার বাড়িতে ৫-৬ জন মুখোশ পড়া ডাকাত তাদের ঘরে ঢুকে। এ সময় ঘরে থাকা আতিকউল্ল্যা, তার মেয়ে ও গৃহপরিচারিকার হাত-পা বেঁধে রেখে জিম্মি করে স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা লুট করে নেয় ডাকাতরা। পরে স্থানীয়রা এসে আতিকউল্ল্যাহকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। অন্যদের বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) ও সদর থানার ওসিসহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ডাকাতিকালে গৃহকর্তা আতিকউল্ল্যাহ নামের একজন নিহত হয়েছেন। ঘটনার তদন্ত ও মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.