রবিবার , ৮ ডিসেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
আবরার হত্যার বিচার হবে ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

আবরার হত্যার বিচার হবে ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

November 13, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক: বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার বিচার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

জানিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ এবং জনগণের চাহিদা অনুযায়ী এই হত্যাকাণ্ডের বিচার যথা শিগগিরই হবে। দ্রুত বিচার আইন, ২০০০’ এ বিচার করার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ করবো। সেটা যখন আইন মন্ত্রণালয়ে আসবে তখন আমরা দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালে এ মামলার বিচার করার জন্য আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবো।

আইনমন্ত্রী বলেন, এ মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ড যখন ঘটে তখনই বলেছিলাম যে, তদন্ত শেষ হওয়ার পর অভিযোগপত্র যখন আদালতে সাবমিট করা হবে, তারপর দায়িত্ব পড়বে প্রসিকিউশন টিমের ওপর। এ মামলা বিচারিক আদালতে আসার পরই যেন কার্যক্রম শুরু করা যায় এজন্য একটা প্রসিকিউশন টিম ঠিক করে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, আপনারা বলেন এখন পর্যন্ত আমি খবর পাইনি, তবে আমি খবর নেব অভিযোগপত্র (চার্জশিট) চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে দাখিল করা হয়েছে কি না। দাখিল করার পর কিছু ফরমালিটিজ রয়েছে। যেমন- যদি পলাতক আসামি থাকে, তাহলে তাকে হাজির হওয়ার জন্য একটা আদেশ দিতে হবে। সে যদি আদেশে হাজির না হয়, তাহলে তার অনুপস্থিতিতে বিচার করা যায়। সে জন্যও একটা গেজেট নটিফিকেশন করতে হবে। এসব ফরমালিটিজগুলো যত শিগগির সম্ভব আমরা শেষ করব এবং এ দায়িত্ব আগামী সোমবারের মধ্যে প্রসিকিউশন টিমকে গ্রহণ করতে বলব। এসব ফরমালিটিজ শিগগিরই শেষ করতে বলব।

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, তারপরও একটা কথা বলে রাখতে চাই, আইনে কিন্তু বলা আছে- একটা সময় দিতে হবে। এই সময়ের ওপর দিয়ে কিন্তু আমরা যেতে পারব না। সেই আইনি বাধ্যবাধকতা মেনেই যত দ্রুত করা যায় সেটা করা হবে।

গত ৬ অক্টোবর দিবাগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শেরে বাংলা হলের নিচতলা থেকে বুয়েটের তড়িৎকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ফেসবুকে ভারতবিরোধী স্ট্যাটাস দেয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতারা আবরারের ওপর নির্যাতন চালায়। একপর্যায়ে তার মৃত্যু হয়।

ওই ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে চকবাজার থানায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার পর থেকে এখন পর্যন্ত বুয়েট ছাত্রলীগের নেতাসহ ২১ জনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি। এর মধ্যে এজাহারনামীয় ১৬ জন এবং এজাহারের বাইরে পাঁচজন। বাকি চারজন পলাতক।

বুধবার আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। এদিন দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, একক কোনো কারণে আবরার হত্যাকাণ্ডটি হয়নি। সে শিবির করে কি-না, হত্যার পেছনে এটি একটি মাত্র কারণ। কিন্তু যারা তাকে হত্যা করেছে তারা এমন উচ্ছৃঙ্খল আচরণে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছিল।

About বিডি ল নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.