রবিবার , ৮ ডিসেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত
যে কারণে খালাস পেলেন ‘বড় মিজান’

যে কারণে খালাস পেলেন ‘বড় মিজান’

November 27, 2019

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা বহুল আলোচিত গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে জঙ্গি হামলা মামলার রায়ে সাত আসাসির ফাঁসির দণ্ড প্রদান করেছে আদালত এবং আসামি মিজানকে খালাস দিয়েছে বিজ্ঞ বিচারক। আজ বুধবার ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। এছাড়াও প্রত্যেক আসামিকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়। ঘটনার সাথে মিজানের সংশ্লিষ্টতা না পাওয়ায় আদালত তাকে খালাস দেন।

সূত্র জানায়, মিজানের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ আনা হয়েছে তা যথাযথ প্রমাণ না হওয়ায় এবং ফাঁসিযোগ্য অপরাধ বিবেচিত না হওয়ায় আদালত তাকে খালাস দেন।

মামলার রায় ঘোষণার পর থেকে বড় মিজানকে নিয়ে প্রশ্ন উঠছে বেশ জোরেশোরে, সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের মনে প্রশ্ন কে এই বড় মিজান?

জানা গেছে, মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান নামে পরিচিত তিনি। বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের হাজারবিঘি চাঁনপুরে। ২০১৬ সালের ২ নভেম্বর ঢাকার দারুস সালাম এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। গুলশান হামলায় ব্যবহৃত বিস্ফোরক সরবরাহে সহায়তা করে হত্যাকাণ্ড সংঘটনে ভূমিকা রাখার অভিযোগ আনা হয়েছে তার বিরুদ্ধে।

তবে আত্মপক্ষ সমর্থন করে দেয়া জবানবন্দিতে মিজান আদালতে বলেছিলেন, তিনি একজন মাছ ব্যবসায়ী, শুধু নামের মিলের কারণে তাকে আসামি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এই ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো- হামলার মূল সমন্বয়ক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডার নাগরিক তামিম চৌধুরীর সহযোগী আসলাম হোসেন ওরফে রাশেদ ওরফে আবু জাররা, অস্ত্র ও বিস্ফোরক সরবরাহকারী নব্য জেএমবির নেতা হাদিসুর রহমান সাগর, জঙ্গি রাকিবুল হাসান রিগ্যান, জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব ওরফে রাজীব গান্ধী, হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী আব্দুস সবুর খান (হাসান) ওরফে সোহেল মাহফুজ, শরিফুল ইসলাম ও মামুনুর রশিদ।

About বিডি ল নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.