শনিবার , ৪ জুলাই ২০২০
Home » আন্তর্জাতিক » ‌‘বাবা-মাকে ছাড়াতে চাপ দিলে স্ত্রীকে তালাক দেওয়া যাবে’

‌‘বাবা-মাকে ছাড়াতে চাপ দিলে স্ত্রীকে তালাক দেওয়া যাবে’

ডেস্ক রিপোর্ট: বিয়ের পর স্ত্রী যদি মা-বাবাকে ছেড়ে আলাদা থাকার জন্য চাপ দেন, তাহলে তাকে তালাক দিতে পারবেন স্বামী।

স্বামীকে বারবার চাপ দিয়ে বাবা-মা’কে ছাড়তে বলাটা তার উপর মানসিক নির্যাতন এবং এটিকে দণ্ডনীয় অপরাধ হিসেবে গণ্য করেছে দেশটির একটি আদালত। তাই স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার জন্য এটিই যথেষ্ট কারণ।

একটি বিচ্ছেদের মামলার ভিত্তিতে এমনই মন্তব্য করেছে ভারতের কেরালার হাইকোর্ট।

মাকে ছেড়ে আলাদা থাকার জন্য চাপ দিচ্ছেন স্ত্রী, এই অভিযোগ তুলে কেরালা হাইকোর্টে বিচ্ছেদের মামলা করেন এক ব্যক্তি। তবে ওই ব্যক্তির স্ত্রী পাল্টা অভিযোগ করেন, শাশুড়ির নির্দেশে স্বামী মদ্যপান করে তার উপর অত্যাচার চালান।

ওই নারী জানান, তিনি স্বামীর সঙ্গে ঘর করতে চান, কিন্তু শাশুড়ির সঙ্গে নয়। সেই মামলার ভিত্তিতে বিচারপতি এএম শফিক ও বিচারপতি মেরি জোসেফের ডিভিশন বেঞ্চ জানান, ‌‌অসহায় বাবা-মা এবং স্ত্রীর প্রত্যাশা, এই দুইয়ের টানাপড়েনের মধ্যে জীবনধারণ যেকোনও পুরুষের জন্যই দুঃসহ। এই ধরনের কোনও ঘটনায় যদি দেখা যায় ডিভোর্সের জন্য অন্য কোনও গ্রহণযোগ্য কারণ নেই। তখন শুধু এই কারণের ভিত্তিতেই স্ত্রীকে তালাক দিতে পারবেন স্বামী।

এই পর্যবেক্ষণের পরই আদালত রায় দেয়, শাশুড়ির থেকে আলাদা থাকার জন্য চাপ দেওয়ার এই আচরণের জন্য পুরুষ সঙ্গী তার স্ত্রীকে ডিভোর্স দিতে পারেন।

এই মামলায় কেরালা হাইকোর্টের আরও একটি পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন। দুই বিচারপতির ওই ডিভিশন বেঞ্চ বলেছেন, বাড়ির বউকে দিয়ে ঘরের কাজ করানোটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। বড়রা চাইলে কখনও কখনও ছোটদের বকাবকিও করতে পারেন।

আদালতের পর্যবেক্ষণ, “কোনও পরিবারই এমন নেই যেখানে সদস্যদের মধ্যে ঝামেলা হয় না। বড়রা ছোটদের বকাবকি করলেও সেটা খুবই সাধারণ বিষয়। বাড়ির বউকে ঘরের কাজ করতে বলাটাও অস্বাভাবিক কিছু নয়।” সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

Share and Enjoy !

0Shares
0 0 0

Check Also

নাহিদুর রহমান নাহিদ, শিক্ষানবিশ -ঢাকা জজ কোর্ট

শিক্ষানবিশদের হয়রানি কবে বন্ধ হবে?

বর্তমানে শিক্ষানবিশদের আইনজীবীদের জন্য একটা ভালো লাগার বিষয় হল জুনিয়রদের দাবী-দাওয়াগুলো নিয়ে সিনিয়র বিজ্ঞ আইনজীবীরা …

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.