বুধবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

মহানগর দায়রা জজকে হাইকোর্টে তলব

নভেম্বর ১২, ২০১২

সন্ত্রাসবিরোধী আইনের মামলার তদন্ত প্রতিবেদন আমলে নেওয়ার ক্ষেত্রে যথাযথ আইন অনুসরণ না করার অভিযোগে মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. জহুরুল হক এবং দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ২৬ নভেম্বর আদালতে হাজির হয়ে তাদেরকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। বিচারপতি ইনায়েতুর রহিম ও মো. আকরম হোসেন চৌধুরীর বেঞ্চ আজ সোমবার এ আদেশ দেন। পুলিশের দুই তদন্ত কর্মকর্তা হচ্ছেন মোহাম্মদপুর থানার এসআই কামরুজ্জামান বিশ্বাস ও শেরেবাংলা নগর থানার এসআই মো. নজরুল ইসলাম।

সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা দুটি মামলায় চার আসামির জামিনের আবেদনের শুনানি করে হাইকোর্ট এ আদেশ দেন।

আদালত সূত্র জানায়, চলতি বছরের ২৪ জুন মোহাম্মদপুর থানা এবং ১১ জুন শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ হিজবুত তাহরির কর্মীদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে দুটি মামলা দায়ের করেন। ওই দুইটি মামলায় তদন্ত করে তদন্ত কর্মকর্তারা চার্জশিট দেওয়ার পর ঢাকা মহানগর দায়রা জজ জহুরুল হকের আদালত ২০ সেপ্টেম্বর শেরেবাংলা নগর থানার মামলায় এবং ৪ অক্টোবর মোহাম্মদপুর থানায় দায়ের করা মামলার অভিযোগ আমলে নেন। গত ১৮ অক্টোবর করা ওই জামিন আবেদনের শুনানিতে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা বলেন, দুটি মামলার তদন্ত এবং অপরাধ আমলে নেওয়ার ক্ষেত্রে আইন মানা হয়নি। আবেদনকারীর যুক্তি শুনে হাইকোর্ট সন্ত্রাসবিরোধী আইনের ব্যাখ্যা চেয়ে বিচারক ও পুলিশ কর্মকর্তাদের তলবের আদেশ দেয়।

আবেদনকারীর আইনজীবী কুমার দেবুন দে বলেন, হিজবুত তাহরিরের সদস্য সন্দেহে গ্রেপ্তার নূর মো. খোকা ও সাফায়াত জামিল সোহাগের বিরুদ্ধে গত ২৫ জুন মোহাম্মদপুর থানায় এবং মো. আরিফুল ইসলাম ও মো. আরিফ করিমের বিরুদ্ধে ১১ জুন শেরেবাংলা নগর থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা হয়। কিন্তু তদন্তের ক্ষেত্রে ওই আইন মানা হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*