রবিবার , ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল

ডিসেম্বর ৫, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে তার পক্ষে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেছেন আইনজীবীরা। তিনটি মনোনয়নপত্রের জন্য পৃথকভাবে এ আপিল করা হয়।

বুধবার নির্বাচন কমিশনে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এ আপিল করেন।

দলটির আইনবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল গণমাধ্যমকে বলেন, খালেদা জিয়ার আমমোক্তারনামা কিংবা অ্যাটর্নিরা এ আবেদন করেছেন।

অ্যাটর্নিরা হচ্ছেন-ফেনী-১ ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, বগুড়া-৬ ব্যারিস্টার নওশাদ জমির ও বগুড়া-৭ অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার।

কারাবন্দি খালেদা জিয়া তিনটি আসনে নির্বাচন করতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। মনোনয়ন যাচাই-বাছাইয়ে রবিবার তিনটি আসনেই তা বাতিল করেন রিটার্নিং অফিসাররা।

ফেনী-১ আসন ও জিয়া পরিবারের আসন বলে পরিচিত বগুড়া-৬ (সদর) ও বগুড়া-৭ আসনে খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। এর মধ্যে বগুড়া-৭ আসনে খালেদা জিয়ার বিকল্প প্রার্থী মোরশেদ মিল্টনেরও মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। তবে বাকি দুই আসনে রিটার্নিং কর্মকর্তা খালেদা জিয়ার বিকল্প প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা করেছেন।

এর আগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিষয়টি নিয়ে নির্বাচন কমিশনে আপিল করা হবে বলে জানিয়েছেন তার অন্যতম আইনজীবী ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল।

রবিবার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতির কক্ষের সামনে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে, এ বিষয়ে তার আইনজীবী হিসেবে আপনারা কী পদক্ষেপ নেবেন-জানতে চাইলে ব্যারিস্টার বাদল বলেন, সরকারদলীয় সংসদ সদস্য ও মন্ত্রীদের মামলা থাকা সত্ত্বেও তাদের পদ অবৈধ হয়নি।

‘আর বিএনপিসহ সরকারবিরোধীদের নির্বাচনের বাইরে রাখতে আদালতের মাধ্যমে এই কৌশল নিয়েছে সরকার। আমরা খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল করব, উচ্চ আদালতে যাব।’

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*