শনিবার , ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

সমকামিতাকে বৈধতা দিল ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সমকামিতাকে বৈধ ঘোষণা করেছেন ভারতের সর্বোচ্চ আদালত। এখন থেকে ভারতে সমকামিতাকে আর অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না। কেউ সমকামিতাকে আর অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করলে জন্য ১০ বছর পর্যন্ত শাস্তিও হতে পারে।

আজ বৃহস্পতিবার দেশটির প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে এনডিটিভি।

রায়ে ব্রিটিশ উপনিবেশ আমলের বহু বছরের পুরোনো ফৌজদারি আইনের ৩৭৭ নম্বর ধারার সাংবিধানিক বৈধতা খারিজ করা হয়েছে।

ভারতের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র রায় ঘোষণার সময় বলেন, আমাদের কুসংস্কার দূর করতে হবে এবং সবাইকে সমঅধিকার দিতে হবে। এসময় অন্য চার বিচারপতিও তাতে সম্মতি দান করেন।

ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারা অনুযায়ী সমকামিতাকে অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এর জন্য ১০ বছর পর্যন্ত শাস্তি হতে পারে। তবে বৃহস্পতিবারের এ রায়ে ভারতে সমকামিতাকে এখন আর অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করার সুযোগ নেই।

২০০১ সালে দিল্লি হাইকোর্টে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারার বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করেছিল স্বে‌চ্ছাসেবী সংস্থা নাজ ফাউন্ডেশন। ২০০৯ সালে দিল্লি হাইকোর্ট রায় দেয়, সম্মতির ভিত্তিতে দুই প্রাপ্তবয়স্কের মধ্যে যৌন সম্পর্ক অপরাধ নয়।

আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, ওই রায়ের বিরুদ্ধে শীর্ষ আদালতে যান একাধিক ব্যক্তি ও সংগঠন। ২০১৩ সালে দিল্লি হাইকোর্টের রায় খারিজ করে সুপ্রিম কোর্ট জানায়, ৩৭৭ ধারার সাংবিধানিক বৈধতা আছে। সমকামিতাকে অপরাধের তকমামুক্ত করতে গেলে সংসদে আইন পাশ করতে হবে।

এরপর নতুন রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ফের আইনি লড়াই শুরু হয়। ২০১৩ সালের রায় বিবেচনা না করে ৩৭৭ ধারার সাংবিধানিক বৈধতা আবার সামগ্রিকভাবে বিচার করে দেখার সিদ্ধান্ত নেয় শীর্ষ আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*