শনিবার , ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

পলাতক ‘রাজাকার’ ইদ্রিস আলীর রায় সোমবার

ডিসেম্বর ৪, ২০১৬

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটনের অভিযোগে শরীয়তপুরের ‘রাজাকার’ ইদ্রিস আলী সরদারের বিরুদ্ধে করা মামলার রায় সোমবার ঘোষণা করা হবে।

আজ রোববার (৪ ডিসেম্বর) বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল রায়ের এ দিন ধার্য করেন।

পলাতক ইদ্রিস আলীর বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের সময় শরীয়তপুর ও মাদারীপুরে গণহত্যা, হত্যা, অপহরণ, আটক, নির্যাতন, লুটপাট-অগ্নিসংযোগ ও দেশত্যাগে বাধ্য করাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটনের অভিযোগ রয়েছে।

এ মামলার আরেক আসামি সোলায়মান মোল্লা গত ২৫ অক্টোবর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

২০১০ সালে শরীয়তপুরের স্বর্ণঘোষ গ্রামের যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সামাদ তালুকদার স্থানীয় রাজাকার সোলায়মান মোল্লা এবং ইদ্রিস আলী সরদারের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

অভিযোগপত্রে বলা হয়, সোলায়মান মোল্লা ও ইদ্রিস আলী মুক্তিযুদ্ধের সময় রাজাকার বাহিনীতে যোগ দিয়ে নানা ধরনের মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িয়ে পড়েন।

গত বছরের ১৪ জুন তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। ওইদিন রাতে শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের বাড়ি থেকে সোলায়মানকে গ্রেফতার করা হয়। পলাতক ইদ্রিস আলীর বাড়ি একই উপজেলার চিতলিয়া ইউনিয়নের কাশাভোগ গ্রামে।

চলতি বছরের ২ মে সোলায়মান মোল্লা ও ইদ্রিস আলীর বিরুদ্ধে চার ধরনের অপরাধের অভিযোগ আমলে নিয়ে চার্জ গঠন করেন ট্রাইব্যুনাল। এই মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়।

উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে গত ২ নভেম্বর মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ (সিএভি) রাখেন ট্রাইব্যুনাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*