এএসপি আনিসুল হত্যা : ডা. মামুনের জামিন

এএসপি আনিসুল করিম শিপন হত্যা : ডা. মামুনের জামিন

নভেম্বর ২২, ২০২০ in আইন-আদালত, কোর্ট প্রাঙ্গণ, সদ্যপ্রাপ্ত, সর্বশেষ সংবাদ

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আনিসুল করিম শিপন হত্যা মামলায় জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের রেজিস্ট্রার ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুনের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।
গত ১৭ নভেম্বর ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুনের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ড শেষে ২০ নভেম্বর তাকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আদাবর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) ফারুক মোল্লা।

BD Law Academy
বিজ্ঞাপন

তখন ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।গত ৯ নভেম্বর দুপুর পৌনে ১২টায় মানসিক সমস্যার কারণে হাসপাতালে আসেন এএসপি আনিসুল করিম। অসুস্থতা নিয়ে হাসপাতালটিতে ভর্তির কিছুক্ষণ পরই মারা যান তিনি।

হাসপাতালের অ্যাগ্রেসিভ ম্যানেজমেন্ট রুমে তাকে মারধরের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন মাধ্যমে।এ ঘটনায় আনিসুলের বাবা বাদী হয়ে আদাবর থানায় ১৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় গ্রেফতার হন ডা. মামুন।

বাংলাদেশীর বিরুদ্ধে মামলাঃ ৪৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ চাইলো ফেসবুক

বাংলাদেশীর বিরুদ্ধে মামলাঃ ৪৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ চাইলো ফেসবুক

নভেম্বর ২২, ২০২০ in আইন-আদালত, কোর্ট প্রাঙ্গণ, সদ্যপ্রাপ্ত, সর্বশেষ সংবাদ

এস কে শামসুল আলম নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ৫০ হাজার মার্কিন ডলার (৪৪ লাখ টাকা) ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা করেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

তার নামে অভিযোগ উঠেছে, ‘এ ওয়ান সফটওয়্যার লিমিটেড’ থেকে তিনি “ফেসবুকডটকম” নামে একটি ডোমেইন খুলে ৬ মিলিয়ন ডলারে বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছিলো। এই বিজ্ঞাপন দেয়ার বিষয়টি ফেসবুক কর্তৃপক্ষের নজরে আসে।

BD Law Academy
বিজ্ঞাপন

বিষয়টি নজরে আসার পর এটি বন্ধ করার জন্য বিটিসিএল ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে আমার সিনিয়র ব্যারিস্টার মোকছেদুল ইসলাম নোটিশ পাঠান। তিনি বলেন, নোটিশ পাঠালেও তারা ডোমেইনটি বন্ধ করেনি।

বরং ডোমেইনটি বিক্রির জন্য ওই ব্যক্তি বিজ্ঞাপন দেন। এ জন্য আদালতে মামলা করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। মামলায় ডোমেইনটির ওপর স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চাওয়ার পাশাপাশি ৫০ হাজার ইউএস ডলার বাংলাদেশি অর্থে প্রায় ৪৪ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে।এই বিষয়ে এস কে শামসুল আলম নামের লোকটির সাথে যোগাযোগ করা এখনো সম্ভব হয়নি।

গোল্ডেন মনিরের ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

নভেম্বর ২২, ২০২০ in অপরাধ, আইন-আদালত, কোর্ট প্রাঙ্গণ, সদ্যপ্রাপ্ত, সর্বশেষ সংবাদ

অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের পৃথক দুইটি মামলায় মো. মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরের ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।রাজধানীর বাড্ডা থানায় র্যা ব বাদী হয়ে গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে অস্ত্র, বিশেষ ক্ষমতা ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে

BD Law Academy
বিজ্ঞাপন

আজ রবিবার সকালে রাজধানীর বাড্ডা থানায় র্যাব বাদী হয়ে গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে এই তিনটি মামলা দায়ের করেন ।গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে ক্রেকারিজ, ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে বাহিরের থেকে পন্য আনা এবং স্বর্ণ চোরাকারবারের সাথে সম্পৃক্ততার অভিযোগ ছিলো। পরে  র‌্যাব গতকাল শনিবার তার বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।

অভিজিৎ রায়ের হত্যা মামলাঃ আরো ২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ

অভিজিৎ রায়ের হত্যা মামলাঃ আরো ২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ

নভেম্বর ১৮, ২০২০ in আইন-আদালত, কোর্ট প্রাঙ্গণ, সদ্যপ্রাপ্ত, সর্বশেষ সংবাদ

ডেস্ক রিপোর্ট

ব্লগার ও লেখক অভিজিৎ রায় হত্যা মামলায় নতুন করে সাক্ষ্য দিয়েছেন আরো দুজন। তারা হলেন- নূর মোহাম্মাদ তালুকদার এবং সৈয়দ আবুল কালাম।বুধবার (১৮ নভেম্বর) সন্ত্রাসবিরোধী বিরোধী বিশেষ ট্রাইবুনালের বিচারক মজিবর রহমানের আদালতে তাদের সাক্ষ্য প্রদান করেন। এই পর্যন্ত ৩৪ জন সাক্ষ্যর মধ্যে ২৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হলো। অত্র আদালতের বেঞ্চ সহকারী পারভেজ ভুইয়্যা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

BD Law Academy
বিজ্ঞাপন

এর আগে কারাগারে আটক ৪ আসামীকে আদালতে নেয়া হয়। এরপর সাক্ষীরা আদালতে সাক্ষ্য দেন। পরে আসামী পক্ষের আইনজীবীরা তাদের জেরা করেন। আদালত পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ২৫ নভেম্বর দিন ধার্য করেন। কিন্তু পলাতক দুই আসামীকে আদালতে উপস্থিত করা সম্ভব হয় নি।

মামলার আসামীরা হলেন মেজর (চাকরিচুত্য) সৈয়দ মোহাম্মাদ জিয়াউল হক ওরফে জিয়া,মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সাইমন(সাংগঠনিক নাম শাহরিয়ার), আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে শাহাব, আকরাম হোসেন ওরফে আবির, মোঃ আরাফাত রহমান এবং শফিউর রহমান ফারাবি।

মামলার অভিযোগ ছিলো- ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারী রাত্র সোয়া নয়টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার সোহরাওয়ার্দীর পাশে লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায়কে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে জখম করে। আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল নেয়া হলে রাতের ১০ টা ৩০ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

পরের দিন ২৭ ফেব্রুয়ারি অভিজিৎ রায়ের বাবা বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অজয় রায় শাহাবাগ থানা একটা হত্যা মামলা করেন। ২০১৯ সালের এপ্রিলে ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইবুনালে বিচারক মোঃ মজিবুর রহমান ছয় আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন। এরপরই ২০১৯ এর আগষ্টের ১ তারিখ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠণ করে বিচার শুরু করার রায় দেন আদালত।