রবিবার , ১৮ নভেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

সড়ক দুর্ঘটনা বন্ধে আইনের প্রয়োগকে শক্তিশালী করুন

জুন ২৪, ২০১৮

বিডি ল নিউজঃ সড়কে একদিনে ৫২ জন মানুষের প্রাণহানি কোন স্বাভাবিক ঘটনা হতে পারে না । এভাবে সবকিছুই স্বাভাবিক ভাবে মেনে নেওয়া অনিয়মকে প্রশ্রয় দেওয়া ও অপরাধকে না দেখে চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার মত বিষয় হয়ে দাঁড়াচ্ছে । সড়কে প্রাণহানীর জন্য কোন দায় নেই কারও । অবাক করার মত একটি সত্য হল সড়কে বের হলে যে-ই আহত বা নিহত হবে তার কোন বিচার হবে না এটা মেনে নিয়েই মানুষও পথ চলে ! আইন যেমন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে থাকবে তেমনি এই অনিয়মগুলোর বিরুদ্ধেও আইনকেই প্রধানতম অস্ত্র হিসেবে ব্যহার করতে হবে ।
রাস্তায় বাংলাদেশের বেশিরভাগ যানবাহনই আইন মানে না । মটর সাইকেল যেভাবে অনিয়মিত গতিতে চালায় মটর সাইকেল চালকরা তেমনি বাস চালকরাও ওভারটেক করার সময় যেভাবে মুভ করে তা শুধু ভয়ানকই নয় অনেকটা জীবন নিয়ে হাসি তামাশার মত ! পঁঞ্চাশ জন মানুষের উপরে একদিনে মৃত্যু আরও কয়েকবার হয়েছে । রুট কস এনালাইসিস করলে দেখা যাবে অতিরিক্ত গতি, ওভার টেকিং, চালকের নেশাগ্রস্থতা, অদক্ষ চালক ও গাড়ির ফিটনেসের সমস্যার কারণেই দুর্ঘটনা হচ্ছে !
দুর্ঘটনা হচ্ছে মানেই শুধুমাত্র একটি পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে ? যার পরিবারে একজনই আয় করার মানুষ সে পরিবারটি ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে । তিন থেকে চারজনের সংসার থাকলে এবং দুজন শিশু থাকলে দুজন শিশুরই পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে । অমনোযোগীতার কারণে একটি পরিবার ভিক্ষুক পরিবারে রুপান্তর হচ্ছে ! তারমানে পুরো দেশই এর ঘানি টানতে বাধ্য হবে ।
আমরা সব জানি । ফলাফল জেনে শংঙ্কিত হয়ে আবার অন্য ঘটনায় ডুবে যাই । কোন ধরণের সমাধান হয় না । মানুষ রাস্তায় মরে আর ভাগ্যের দোষ দিয়ে বসে থাকতে পরিবার বাধ্য হয় । তবে কি পরিবহন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের শক্তি বেশি আগ্রাসী হয়ে যাচ্ছে ?
আইনের প্রয়োগ সুস্পষ্টভাবে বাড়াতে হবে । চালকদের নৈতিকতার জায়গা ও দক্ষতার জায়গা এবং আইন মানার ব্যপারে শ্রদ্ধাশীল না হলে দুর্ঘটনা কখনই কমবে না । সবাই মৃত্যুর দায় এড়িয়ে যাওয়াই সমাধান নয় । কথা বলুন, সমাধানের পথ বের করুন । সব কিছু স্বাভাবিক ভাবে মেনে নেওয়া মানে অনিয়মকে প্রশ্রয় দেওয়া, নিয়মকে ইচ্ছে করে দমিয়ে রাখা । সড়ক দুর্ঘটনায় এত মানুষ মরতে পারে না এটা কোন সাধারণ ব্যপার নয় ।
সাঈদ চৌধুরী
সদস্য, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি
ও রসায়নবিদ
শ্রীপুর, গাজীপুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*