সোমবার , ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

তাজিনের মরদেহ কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে

মে ২৩, ২০১৮

বিডি ল নিউজঃ অভিনেত্রী তাজিন আহমেদের মা দিলারা বেগমের (৬০) বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতির চারটি মামলা রয়েছে। ওই মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে তিনি ২০১৫ সালের ২৩ অক্টোবর আদালতের মাধ্যমে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তরিত হন। পরে ঢাকা জেলা দায়রা আদালতের বিচারক চারটি মামলার প্রতিটিতে তাঁকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেন। তাঁর সম্ভাব্য মুক্তির দিন হলো ২০১৯ সালের ২২ অক্টোবর। ২০১৬ সালের ২৭ জুলাই তাঁকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে পাঠানো হয়।

তাই বন্দী মাকে মৃত মেয়ের মুখ শেষবারের মতো দেখাতে আজ বুধবার সকালে তাজিনের মরদেহ নেওয়া হয় কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারা ফটকে। কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারের কারাধ্যক্ষ উম্মে সালমা জানান, সকাল আটটার তাঁর সহকর্মীসহ পাঁচজন কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে তাজিনের লাশবাহী গাড়ি কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারের ফটকে নিয়ে আসেন। পরে তাঁর মরদেহ মা দিলারাকে দেখানো হয়। এ সময় মেয়ের লাশ দেখে মা কান্নায় ভেঙে পড়েন। কিছু সময় পরেই আবার তাজিনের মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে মারা যান তাজিন আহমেদ। তাঁর বয়স হয়েছিল ৪৩ বছর। সেদিন সকাল ১০টার দিকে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন এই অভিনেত্রী। পরে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁকে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়। বিকেল সাড়ে চারটার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। আজ দুপুরে গুলশান আজাদ মসজিদে জানাজার পর তাজিন আহমেদকে বনানী কবরস্থানে তাঁর বাবার কবরে দাফন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*