সোমবার , ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

সেনা সদস্য হত্যায় জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার দুই

আগস্ট ১৯, ২০১৮

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে ডাকাতদলের দায়ের কোপে নিহত সেনা সদস্য সাইফুল ইসলাম (৩২) হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা হলো মিজানুর রহমান মিজার ও আকিমুল হোসেন।

আজ রবিবার সদর উপজেলার আসাননগর ও সাধুহাটী এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি হাসুয়াও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এর আগে, শনিবার রাতে নিহতের পিতা হাবিজুদ্দীন হাবু বাদি হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। নিহত সাইফুল টাঙ্গাইলের ঘাটাইল সেনানিবাসের মেডিকেল কোরের ল্যান্স কর্পোরাল। তার বাড়ি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বংকিরা গ্রামে। গত ১৭ আগষ্ট ১০ দিনের ঈদের ছুটিতে বাড়ি আসেন সাইফুল।

এরপর, গত শনিবার সন্ধ্যায় বদরগঞ্জ বাজার থেকে সাইফুলের শ্বশুর ছামছুল ইসলামকে সাথে নিয়ে তিনজন একটি মটরসাইকেলযোগে নিজ গ্রামে ফিরছিলো। বাড়ির কাছাকাছি হাওনঘাটা মাঠের মধ্যে পৌছালে ৬/৭ জনের একদল ডাকাত জাম গাছ কেটে রাস্তায় ফেলে গতি রোধ করে। এ সময় ডাকাতদলের সাথে সাইফুলের বাদানুবাদের এক পর্যায়ে তারা প্রথমে তাকে হাতে ও পরে গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত সাড়ে ১০টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাইফুলকে মৃত ঘোষনা করেন।

ডাকাতদের পরিচয় সনাক্ত করে ফেলার কারণে সাইফুলকে হত্যা করা হতে পারে বলে তার ছোট ভাই নৌ বাহিনীর সদস্য মনিরুল দাবি করেন।

এদিকে রবিবার সকালে নিহত সেনা সদস্যের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে যশোর সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়। সেনাবাহিনীর একটি গাড়িতে করে লাশ তার গ্রামের বাড়িতে পৌছে দেওয়া হয়। লাশ বংকিরা গ্রামে পৌছালে তার পরিবার, স্বজন ও গ্রামবাসির মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*