বৃহস্পতিবার , ২২ নভেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

সুন্দরবন থেকে গোলাবারুদসহ ৪ জলদস্যু আটক

সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮

খুলনা প্রতিনিধি: সুন্দরবন থেকে দুই জলদস্যু বাহিনীর ৪ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব ৮। গতকাল শুক্রবার বিকেলে পাথরঘাটা সংলগ্ন সুন্দরবনের শাখা খাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আজ শনিবার ভোর রাতে গোলাবারুদসহ তাদেরকে পাথরঘাটা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে পাথরঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোল্লা মো. খবীর আহম্মেদ জানান, র‌্যাব গতকাল শুক্রবার বিকেলে পাথরঘাটা সংলগ্ন সুন্দরবনের শাখা খাল এলাকায় অভিযানকালে ছত্তার বাহিনীর সদস্য রুমি শেখকে আটক করে। পরে তাকে নিয়ে সুন্দরবনে অভিযান চালালে সুন্দরবনের কুখ্যাত জলদস্যু জাকির বাহিনীর অন্য ৩ সদস্যকে আটক করে।

আটককৃতরা হলেন- ছত্তার বাহিনীর সদস্য বাগেরহাটের মোংলা উপজেলার নারিকেলতলা এলাকার আ. গফফার শেখের ছেলে রুমি শেখ (২৮), জাকির বাহিনীর সদস্য রামপালের কাঠালী এলাকার ইউনুছ আকন্দের ছেলে এমাদুল আকন্দ (২৭), বড় কাঠালী এলাকার বাবুল খানের ছেলে ইমরান খান (২৮) ও মোংলা উপজেলার সোনাইতলা এলাকার আবু হাসান সরদারের ছেলে হাসমত আলী (৩৭)। তাদের কাছ থেকে দুটি দেশীয় বন্দুক, ১০ রাউন্ড গুলি, একটি এক নলা বন্দুক, ১২ বোর বন্দুকের ৪ রাউন্ড কার্তুজসহ ৩টি দেশীয় তৈরি ছেনা উদ্ধার করা হয়।

র‍্যাব সূত্রে জানা গেছে, আটককৃতদের বিরুদ্ধে পাথরঘাটা থানায় অস্ত্র ও ডাকাতি প্রস্তুতির পৃথক ৪টি মামলা করেছেন র‌্যাব-৮ এর ডিএডি একে এম আবু হোসেন শাহরিয়ার।

এ প্রসঙ্গে ডিএডি শাহরিয়ার বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাথঘাটা সংলগ্ন সুন্দরবনের শাখা খাল এলাকায় পৃথকভাবে জলদস্যুদের আস্তানায় অভিযানকালে দুই বাহিনীর ৪ দস্যুকে আটক করা হয়েছে। এ সময় অন্তত আরও ৫ থেকে ৭ জন জলদস্যু পালিয়ে যায়। ৪ জনকে আসামি করে পাথরঘাটা থানায় অস্ত্র ও ডাকাতি প্রস্তুতির পৃথক ৪টি মামলা করা হয়েছে। পালিয়ে যাওয়া দস্যুদের আটকের ব্যাপারেও অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*