বুধবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত

দৈনন্দিন জীবনে আইন

সরকারী পরীক্ষায় অপরাধ নিয়ন্ত্রণের জন্য আইন

দেশে এখন উচ্চমাধ্যমিক ও সমমানের পাবলিক পরীক্ষা চলতেছে। আসুন জেনে নেই সরকারী পরীক্ষায় অপরাধ নিয়ন্ত্রণের জন্য আইনের বিধান কি ? অন্যের হয়ে পরীক্ষা দেবার শাস্তিঃ যদি কোন ব্যক্তি সরকারী কোন পরীক্ষায় অন্যের হয়ে পরীক্ষা দিতে পরীক্ষার হলে যায় তাহলে সে ব্যক্তি সরকারী পরীক্ষা (অপরাধ) আইন, ১৯৮০ এর ৩ ধারার বিধান মতে পাঁচ বত্সর পর্যন্ত যে কোন মেয়াদের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হবেন ... Read More »

মামলার কোন বিষয়ের উপর আদালতে সাক্ষ্য প্রদান করা যাবে ?

সাক্ষ্য আইন ১৮৭২ মামলার কোন বিষয়ের উপর আদালতে সাক্ষ্য প্রদান করা যাবে ? দেওয়ানী বা ফৌজদারী যে কোন মামলায় আদালতে সাক্ষ্য প্রমানের মাধ্যমে বিচার্য বিষয়ের মীমাংসা করতে হয়। এখন প্রশ্ন হল আদালতে মামলার কোন বিষয়ের উপর সাক্ষ্য প্রদান করা যাবে। কোন ঘটনাকে হাজার রকম ঘটনার সাথে জড়িত বা জড়িত বলে অনুমান করা যেতে পারে যা বিচার্য বিষয়কে জটিল ও দুরূহ ... Read More »

মৃত্যুকালীন জবানবন্দি কাকে বলে?

মৃত্যুকালীন জবানবন্দি কাকে বলে? মৃত্যুকালীন জবানবন্দী লিপিবদ্ধ করার পদ্ধতি । উত্তর- ১৮৭২ সালে প্রনীত সাক্ষ্য আইনের ৩২(১) ধারা মতে, কোন ব্যক্তি মৃত্যুর সম্মুখীন হয়ে যে ঘটনার ফলে তার মৃত্যু হচ্ছে অথবা আদালতের কোন বিচার্য বিষয় বা প্রাসঙ্গিক বিষয়ে যে বিবৃত্তি বা জবানবন্দী প্রদান করে তাকে মৃত্যুকালীন জবানবন্দি বলে। সাক্ষ্য আইন ৩২(১) ধারা পিআরবি ২৬৬ বিধি ★মৃত্যুকালীন জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করার পদ্ধতিঃ ... Read More »

জেনে নেই সরকারিভাবে আইনগত সহায়তা প্রাপ্তি সম্পর্কিত তথ্য

আইনগত সহায়তা বাংলাদেশের সংবিধানের ২৭নং অনুচ্ছেদে অনুযায়ী প্রত্যেক নাগরিক আইনের দৃষ্টিতে সমান এবং সমানভাবে আইনের আশ্রয় পাবার অধিকারী। কিন্তু প্রকৃতভাবে দেখা যায় দরিদ্র নাগরিকেরা অর্থের অভাবে আইনজীবি নিয়োগ দিতে পারেন না এবং আদালতের কাছে বিচার চাওয়া্র মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হন। এসব দরিদ্র জনগোষ্ঠীর বিচার পাবার মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে আইনগত সহায়তা প্রাপ্তি সাংবিধানিক অধিকার হিসেবে বিবেচিত এবং ২০০০ সালে ... Read More »

সম্পত্তির কত অংশ উইল করা যায়

কোনো মুসলমান তার দাফন-কাফন ব্যয় ও দেনা পরিশোধের পর, উদ্বৃত্ত সম্পত্তির এক-তৃতীয়াংশের অধিক উইলমূলে হস্তান্তর করতে পারে না। উইলকারীর মৃত্যুর পর উত্তরাধিকারীরা সম্মতি না দিলে উইলের মাধ্যমে বৈধ এক-তৃতীয়াংশের অধিক পরিমাণ সম্পত্তি দান কার্যকর হবে না। পৃথিবীতে ভূমিষ্ঠ হয়নি এমন ব্যক্তির ব্যাপারে উইল : নিম্নলিখিত ক্ষেত্র ব্যতীত এখনো ভূমিষ্ঠ হয়নি এমন ব্যক্তির বরাবরে উইল বাতিল বলে গণ্য হবে। (ক) যে ... Read More »

তালাক প্রদান প্রক্রিয়া

আমরা সবাই তালাক বিষয়টির সাথে কমবেশি পরিচিত। কিন্তু তালাক দেওয়ার আইনগত প্রক্রিয়া কি এটা আমরা অনেকেই জানিনা। ১৯৩৯ সালের মুসলিম বিবাহ বিচ্ছেদ আইন এর ২ধারায় এ সংক্রান্ত কিছু শর্ত ও প্রক্রিয়া উল্লেখ করা হয়েছে যা নিম্নরূপঃ ১. কোনো ব্যক্তি স্ত্রীকে তালাক দিতে চাইলে তাকে যে কোনো পদ্ধতির তালাক ঘোষণার পর যথাশীঘ্রই সম্ভব স্থানীয় ইউপি/পৌর/সিটি চেয়ারম্যানকে লিখিতভাবে তালাকের নোটিশ দিতে হবে ... Read More »

সম্পত্তির কত অংশ উইল করা যায়

কোনো মুসলমান তার দাফন-কাফন ব্যয় ও দেনা পরিশোধের পর, উদ্বৃত্ত সম্পত্তির এক-তৃতীয়াংশের অধিক উইলমূলে হস্তান্তর করতে পারে না। উইলকারীর মৃত্যুর পর উত্তরাধিকারীরা সম্মতি না দিলে উইলের মাধ্যমে বৈধ এক-তৃতীয়াংশের অধিক পরিমাণ সম্পত্তি দান কার্যকর হবে না। পৃথিবীতে ভূমিষ্ঠ হয়নি এমন ব্যক্তির ব্যাপারে উইল : নিম্নলিখিত ক্ষেত্র ব্যতীত এখনো ভূমিষ্ঠ হয়নি এমন ব্যক্তির বরাবরে উইল বাতিল বলে গণ্য হবে। (ক) যে ... Read More »

রেজিষ্ট্রি দলিলের আবশ্যকীয় শর্তাবলী

রেজিষ্ট্রি দলিলের আবশ্যকীয় শর্তাবলী একটি রেজিষ্ট্রি দলিলে নিমড়ববর্ণিত শর্তাবলী পালন করতে হয় অন্যথায় দলিলটি স্বয়ং সম্পূর্ণ হবেনা: ১। শিরোনামঃ দলিলটি কো ধরণের দলিল তা প্রথম বর্ণনায় উলেলখ করতে হবে। যেমন: সাফকবলা, বায়নাপত্র আম- মোক্তারনামা ইত্যাদি। ২। পক্ষগণের পরিচয়ঃ দান গ্রহীতা, প্রথম পক্ষ, দ্বিতীয় পক্ষ ইত্যাদি। নাম বা প্রতিষ্ঠানের নাম, পিতার নাম, পেশা, ধর্ম, জাতীয়তা বাসস্থান ইত্যাদি। অর্থাৎ কোন কোন পক্ষের ... Read More »

হলফনামা সম্পাদন করার নিয়ম

জমি কেনাবেচা, বিয়ে কিংবা বিচ্ছেদ, নাম পরিবর্তন বা সংশোধন, পাসপোর্টে নাম সংশোধন ও মামলা মোকদ্দমাসহ নানা কাজে প্রয়োজন হয় হলফনামার। এ ছাড়া বিভিন্ন দলিল-দস্তাবেজ তৈরির কাজেও লাগে হলফনামা। হলফনামা হচ্ছে কোনো বিষয়ে সত্যতাসহ এর সমর্থনে ঘোষণা দেওয়া। যথাযথ নিয়মকানুন মেনেই সম্পাদন করতে হয় হলফনামা। হলফনামায় যা যা উল্লেখ করতে হবে: •হলফনামা হবে লিখিত। এতে হলফকারীর পূর্ণ নাম, ঠিকানা, বাবা-মায়ের নাম, ... Read More »

স্ত্রী আগে তালাক দিলে কি দেনমোহর দিতে হয় না?

মুসলিম বিয়েতে দেনমোহর হচ্ছে স্বামীর কাছথেকে স্ত্রীর একটি বিশেষ অধিকার। দেনমোহর সাধারণত বর ও কনের সামাজিক অবস্থান অনুযায়ী নির্ধারিত হয়। দেনমোহর হিসেবে যেকোনো পরিমাণ অর্থ নির্ধারণ করা যায়। কিন্তু কোনো অবস্থায়ই স্বামী ন্যূনতম ১০ দিরহাম বা সমপরিমাণ অর্থ অপেক্ষা কম নির্ধারণ করতে পারবেন না। বিয়ের সময় দেনমোহর নির্ধারণ করা না হলে বিয়ের পরও তা নির্ধারণ করা যায়। তবে সে ক্ষেত্রে ... Read More »